ঠাকুরগাঁওয়ে নিজ বাসার গলি থেকে অর্ধ দগ্ধ এক নারীর মরদেহ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ ঠাকুরগাঁও শহরের শহীদ মোহাম্মদ আলি সড়কের পাশে নিজ বাসার গলি থেকে মিলি চক্রবর্তী (৪৫) নামে এক গৃহবধুর নগ্ন ও অর্ধ দগ্ধ মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।
আজ বৃহস্পতিবার (৮ জুলাই) সকালে বাড়ীর সংলগ্ন গলিতে মায়ের মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখে তার ছেলে অর্ক রায় ৯৯৯-এ পুলিশকে খবর দেয়। পরে ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করে।
নিহত মিলি চক্রবর্তী সমীর কুমার রায় ওরফে সোনা’র স্ত্রী।তিনি এক সময় একটি কিন্ডার গার্টেন স্কুলে শিক্ষকতা করতেন।
নিহত মিলির স্বামী সোনা জানান, তিনি রাতে খেলা দেখে ঘুমিয়ে পড়েন, সকালে ঘুম থেকে উঠে এ অবস্থা দেখতে পান।তিনি আরও বলেন, তার স্ত্রী টেবিলে রাখা একটি ডায়েরীতে সুসাইড নোট লিখে গেছেন। সেখানে লিখা ছিলো-“তিথি তুই যা ভাবছিলি তা নয়, আমার ক্যান্সার হয়েছে।আমার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয়”।
নিহতের ছেলে অর্ক রায় জানান, আমার কয়েকদিন থেকে জ্বর, আমি অসুস্থ্য।সকালে আমার স্ত্রী আমাকে ঘুম থেকে ডেকে বলে জানালা দিয়ে গলিতে শাখা পড়া একটি মহিলার লাশ দেখা যাচ্ছে, মনে হচ্ছে উনি তোমার মা। পরে আমি জানালা দিয়ে দেখে ৯৯৯-এ কল করি।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাজিয়া সুলতানা বলেন, পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে কোন দাহ্য পদার্থ দিয়ে মৃতদেহ পোড়ানোর চেষ্টা করা হয়েছে। এটি হত্যা নাকি আত্মহত্যা, শরীরে পোশাক না থাকায় ধর্ষণের পর হত্যা কিনা সেসব প্রশ্নে তিনি বলেন, ময়না তদন্তের পর প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে।
এদিকে মৃত্যর ঘটনার রহস্য উদঘাটনে তদন্তে নেমেছে সিআইডি, পিবিআই ও পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তারা।
বিডি

Leave a Reply