৩ লক্ষ দিয়েও শোধ হচ্ছেনা ২৮ হাজার টাকার ঋণ, দাদন ব্যবসায়ীর খপ্পড়ে এক আদিবাসি পরিবার

পাঁচবিবি (জয়পুরহাট) প্রতিনিধি : দাদন ব্যবসায়ীদের খপ্পড়ে পড়ে নিজের সর্বস্ব বিক্রি করে সুদের টাকা পরিশোধ করলেও পুনরায় সুদের টাকার দাবি করছেন এক দাদন ব্যবসায়ী। নিজের সর্বস্ব হারিয়ে টাকা দিতে অপারগতা স্বীকার করায় ভাড়াটিয়া দিয়ে বাড়ি দখলেও চেষ্টা করছেন।

জয়পুরহাটের পাঁচবিবির পৌর শহরের উত্তর গোপালপুরে এ ঘটনাটি ঘটে। প্রতিকার চেয়ে ভুক্তভোগী আদিবাসী এক যুবক মঙ্গলবার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট লিখিত অভিযোগ করেন।

অভিযোগে জানাযায়, ৩ বছর আগে আদিবাসী ওপেন উড়াও পাঁচবিবির বালিঘাটা বাজারের শুকুর আলীর ছেলে দাদন ব্যবসায়ী শফিকুল ইসলামের নিকট থেকে ২৮ হাজার টাকা মাসিক সুদে ঋণ নেয়। এ যাবৎ ৩ লক্ষ টাকা পরিশোধ করেও শোধ হয়নি দাদন ব্যবসায়ীর ২৮ হাজার টাকার ঋণ। টাকা গ্রহনকালে ব্যাংকের ফাঁকা চেক, ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেয় শফিকুল।

ওপেন আরো জানায় টাকা পরিশোধ করে কাগজপত্র ফেরৎ চাইলে না দিয়ে বরং ওই কাগজে লক্ষ লক্ষ টাকার অংক বসিয়ে উকিল নোটিশ পাঠায়।

অভিযোগ বিষয়ে শফিকুল ইসলাম বলেন, আমার নামে এসব অভিযোগ মিথ্যা। তবে জমি বিক্রির জন্য আমার নিকট থেকে ৫ লক্ষ টাকা ওপেন নিয়েছিল।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরমান হোসেন বলেন, এমন লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান তিঁনি।

বকুল/বিডি

Leave a Reply