১৮ মাস ভারতে আটক থাকার পর হিলি সীমান্ত দিয়ে দেশে ফিরল দশ কিশোর

tkeditortkeditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১২:৫১ AM, ৩১ মার্চ ২০১৭

প্লাবন গুপ্ত শুভ, ফুলবাড়ী (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : প্রায় ১৮ মাস পর অবশেষে ভারতের দক্ষিণ দিনাজপুরের “বালুরঘাট শুভায়ণ অবজারভেশন হোমে” হেফাজতে থাকা বাংলাদেশি দশ কিশোর বৃহস্পতিবার দিনাজপুরের হিলি চেকপোস্ট দিয়ে দেশে ফিরেছে।

দেশে ফেরত আসা দশ কিশোর হচ্ছে: পটুয়াখালীর কলাপাড়া গ্রামের মৃত হানিফ হোসেনের ছেলে রয়েল হোসেন (১৭), পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জের ভাউলাগঞ্জ গ্রামের হোসেন আলীর ছেলে সুজন ইসলাম (১৬), দিনাজপুরের হাকিমপুরের ঘাসুড়িয়া গ্রামের রোস্তম আলীর ছেলে রায়হান কবীর (১৫) ও একই উপজেলার উত্তরবাসুদেবপুর গ্রামের আব্দুল হাকীমের ছেলে সুজন হোসেন (১৬), ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জের কাস্তোর গ্রামের মনছের আলীর ছেলে মুকিদুল ইসলাম (১৭), জয়পুরহাটের কালাইয়ের কাজীপাড়া গ্রামের মৃত লুৎফর রহমানের ছেলে জুয়েল কাজী (১৬), চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদরের চারশেখালীপুরের শহিদুল ইসলামের ছেলে সোহেল রানা (১৭) ও একই জেলা সদরের আব্দুর রহিমের ছেলে জহুরুল ইসলাম (১৭) ও আব্দুল খালেকের ছেলে অসীম আকরাম (১৫) এবং পাবনার চাটমোহরের কদমতলীর শিহাব উদ্দীনের ছেলে এনামুল হক (১৪)।

বেলা ১২টায় দিনাজপুরের হিলি চেকপোস্ট দিয়ে তাদের ফেরত পাঠিয়েছে ভারতের হিলি চেকপোস্ট অভিবাসন পুলিশ। এ সময় সেখানে বিজিবি, বিএসএফ, মহিলা আইনজীবী সমিতির প্রতিনিধিসহ শুভায়ণের অবজারভেশন হোমের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। পরে তাদের পরিবারের কাছে তুলে দেয় বাংলাদেশের হিলি চেকপোস্ট অভিবাসন পুলিশ।

হিলি চেকপোস্ট অভিবাসন পুলিশের অফিসার ইনচার্জ মো. আফতাব হোসেন বলেন, ফেরত আসা দশ কিশোর বিভিন্ন সীমান্ত এলাকা দিয়ে কাজের সন্ধানে ভারতে গিয়ে বিএসএফ ও পুলিশের হাতে আটক হয়ে গত এক বছর থেকে দেড় বছর ধরে “বালুরঘাট শুভায়ণ অবজারভেশন হোমে” হেফাজতে ছিল। পরে উভয় দেশের সহযোগিতায় ভারতীয় ইমিগ্রেশন পুলিশ কর্তৃপক্ষ তাদের ফেরত দিয়েছে।

জেলার খবর

আপনার মতামত লিখুন :