সম্পাদকদের ওয়ারেন্ট অব প্রেসিডেন্স মযার্দা কেন নয়: হাইকোর্টের রুল জারি

tkeditortkeditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:২৩ AM, ০৪ এপ্রিল ২০১৭

ঠাকুরগাঁওয়ের খবর ডেস্ক : দৈনিক পত্রিকার সম্পাদকদের কেন ওয়ারেন্ট অব প্রেসিডেন্সি (রাষ্ট্রীয়) মযার্দার অন্তর্ভুক্ত করার নির্দেশ দেওয়া হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। তাদেরকে ওয়ারেন্ট অব প্রেসিডেন্সি অন্তর্ভুক্ত করার জন্য মন্ত্রীপরিষদ সচিবকে কেন নির্দেশ দেয়া হবে না রুলে তাও জানতে চাওয়া হয়েছে।
এ সংক্রান্ত এক রিটের শুনানি করে সোমবার (৩ এপ্রিল) হাইকোর্টের ‍বিচারপতি আশফাকুল ইসলাম ও বিচারপতি আশীষ রঞ্জন দাসের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন। আদালতে আজ রিটের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার রাগিব রউফ চৌধুরী ও তার সঙ্গে ছিলেন নজরুল আলম রনি।

আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব, আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব ও তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিবকে উক্ত রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

এর আগে ২ এপ্রিল এ সংক্রান্ত বিষয়ে রিট করেন একটি দৈনিক পত্রিকার সম্পাদক।

রিটে বলা হয়, সাংবাদিকদের ভূমিকা মূল্যায়ন করে দৈনিক পত্রিকার সম্পাদক, বিশ্ব বিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর, মেডিকেল কলেজের প্রিন্সিপাল, প্রফেসর এবং চেয়ারম্যানের মর্যাদা রয়েছে। কিন্তু জাতীয় দৈনিকের সম্পাদকদের এই পর্যায়ে রাখা হয়নি। তাই তাদের এই মর্যাদায় অন্তর্ভুক্ত করার জন্য রিট করা হয়েছে।

রিটের যুক্তিতে আরও বলা হয়, ভারত, পকিস্তান, অস্ট্রেলিয়া এবং আমেরিকাতে সরকারি কর্মকর্তা ছাড়াও বিভিন্ন পেশাজীবীদেরকে ওয়ারেন্ট অব প্রেসিডেন্ট মযার্দা দেয়া হয়েছে।

রিটে আরও বলা হয় ২০১৫ সালের ১১ জানুয়ারি সুপ্রিমকোর্টের এক রায়ে দেশের জন্য যুদ্ধ করেছেন ওইসব মুক্তিযোদ্ধাদের ছাড়াও বিভিন্ন পেশাজীবীদের ওয়ারেন্ট অব প্রেসিডেন্সির অর্ন্তভুক্ত করার প্রক্রিয়া গ্রহণ করার জন্য বলেছেন।

জেলার খবর

আপনার মতামত লিখুন :