শোলাকিয়ায় সন্ত্রাসী হামলায় ২ পুলিশসহ নিহত ৪

tkeditortkeditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৪:১৭ PM, ০৭ জুলাই ২০১৬

কিশোরগঞ্জ সংবাদদাতা :কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দান সংলগ্ন আজিমুদ্দিন হাইস্কুলের পাশে দুর্বৃত্তদের সঙ্গে পুলিশের বন্দুকযুদ্ধে দুই পুলিশ কনস্টেবল ও এক দুর্বৃত্তসহ চার জন নিহত হয়েছেন। নিহত অপরজন স্থানীয় এক নারী।

বৃহস্পতিবার (৭ জুলাই) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে ঈদুল ফিতরের নামাজ চলাকালে এ সংঘর্ষে ১০ পুলিশ সদস্যসহ আহত হয়েছেন আরও বেশ কয়েকজন। ঘটনাস্থল থেকে তিন হামলাকারীকে আটক করেছে পুলিশ। তাদের মধ্যে একজন গুলিবিদ্ধ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সংঘবদ্ধ দুর্বৃত্তরা ধারালো অস্ত্র, আগ্নেয়াস্ত্র ও বোমা নিয়ে কর্তব্যরত পুলিশের ওপর এ হামলা চালায়। এ সময় পুলিশের সঙ্গে দুর্বৃত্তদের প্রায় ঘণ্টাব্যাপী লড়াই চলে। পরে পুলিশের প্রতিরোধে হামলাকারীরা পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পুলিশের গুলিতে এ সময় এক হামলাকারী নিহত হয়। এছাড়া ঘটনাস্থল থেকে আহতাবস্থায় এক দুর্বৃত্তসহ ৩ জনকে আটক করে পুলিশ।

নিহত দুই পুলিশ কনস্টেবল হলেন জহুরুল ও আনসার উল্লাহ। নিহত নারীর নাম ঝর্ণা রাণী ভৌমিক (৩৪)। তার স্বামীর নাম গৌরাঙ্গ ভৌমিক।

দুর্বৃত্তদের সঙ্গে পুলিশের লড়াই চলার সময় একটি গুলি জানালা দিয়ে ঢুকে ঘরের মধ্যে অবস্থানরত ঝর্ণা রাণীকে বিদ্ধ করে। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি।

পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি (উপ মহাপরিদর্শক) নুরুজ্জামান দুই পুলিশ কনস্টেবলের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, কনস্টেবল জহিরুলের মৃত্যু হয় ঘটনাস্থলে। আর মাথায় গুলিবিদ্ধ আনসার উল্লাহ‘র মৃত্যু হয় বেলা ১২টার দিকে ময়মনসিংহ সেনানিবাসের সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে।

গুরুতর আহত ১০ পুলিশ সদস্যকে প্রথমে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে, পরে সেখান থেকে ময়মনসিংহ সেনানিবাসের সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) পাঠানো হয়।  সেখান থেকে গুরুতর আহত পুলিশ সদস্যদের নিয়ে বেলা সোয়া ১২টার দিকে একটি হেলিকপ্টার ঢাকার উদ্দেশে রওয়ানা হয়।

আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন-কনস্টেবল জুয়েল, মশিউর, প্রশান্ত, রফিকুল, তুষার, জয়নাল, আবুল কাশেম, হৃদয় এবং সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) নয়ন।

এছাড়া এ ঘটনায় আহত হন আব্দুর রহিম নামের এক সিএনজি অটোরিকশা চালকও। তিনি বর্তমানে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

ঢাকার বিভাগীয় কমিশনার হেলালুদ্দিন আহমদ জানান, আহত অবস্থায় আটক হামলাকারীর নাম আবু মুক্তাদিল। তার বাড়ি দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে। অপর হামলাকারীর নাম জহিরুল হক। তার বাড়ি কিশোরগঞ্জ। অপরজনের নাম এখনও জানা যায়নি।বর্তমানে ঘটনাস্থলের আশপাশের এলাকায় তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

এ ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে দেশের সর্বস্তরের মানুষ।

অপরাধ

আপনার মতামত লিখুন :