শীতে নিদারুন কষ্টে দিন কাটছে পীরগঞ্জের আদিবাসীদের !

adminadmin
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৯:৩৫ PM, ০৯ জানুয়ারী ২০২১

আবু তারেক বাঁধন, পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও) থেকে : দেশের উত্তরের জনপদ ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলায় শীতের তীব্রতা বেড়েছে। এতে চরম দূর্ভোগে পরেছে অসহায় শীতার্ত পরিবার গুলো। বিশেষকরে পীরগঞ্জ উপজেলার রেলওয়ে স্টেশন, লাচ্ছি নদীর ধার দিয়ে গড়ে উঠা অসহায়, ছিন্নমূল ও আদিকাল থেকে বসবাস করে আসা পূর্ব-পাড়িয়া গ্রামের বেশ কিছু আদিবাসী পরিবার।

শীতে একটু উষ্ণতার জন্য তাদের কাছে পর্যাপ্ত বস্ত্র না থাকায় কনকনে শীতের রাতে ঘুমাতেও পারছেনা তারা। রাতে ঘুমাতে না পেরে দিনের বেলা উঠানে খড় বিছিয়ে সূর্যের তাপনিয়ে ঘুমানোর চেষ্টাও করছে অনেকে। কোনো কোনো দিন ঘন কুয়াশার কারণে সূর্যের আলো না আসায় কষ্ট যেন দ্বিগুণ হয়ে যায় সেখানে। শিশুদের দিকে তাকালে বোঝা যায় জীবন কতটা নির্মম তাদের জন্য। শীতের এ সময় তেমন কোনো কাজ না পাওয়া দিনমজুর ও অসহায় আদিবাসী পরিবার গুলোর দিকে তাকানোর যেনো কেউ নেই।

শুক্রবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে- অসহায় ও আদিবাসী পরিবার গুলোর শীতে বেহাল দশার এ চিত্র। পীরগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন এর আশপাশ, লাচ্ছি নদীর ব্রীজের উত্তরের কিছু ছিন্নমুল পরিবার ও পাড়িয়া গ্রামের বেশ কিছু আদিবাসী পরিবার বস্ত্র, নিরাপদ পানি ও স্বাস্থ্যহীনতায় ভুগছে। যত্রতত্র মলমূত্র ত্যাগ করে পরিবেশ দূর্ষণ করছে এই পরিবাগুলো।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দুইজন আদিবাসীর সাথে কথা হলে তারা জানায়, পাড়িয়ার পশ্চিম দিকের পাড়াটি পৌরসভার নিকটে হওয়ায় কোনো সুযোগ সুবিধা এলে ঐ পর্যন্তই দেয়া হয়, তবে পূর্ব পাড়িয়ায় কেউ আসে না। এটি ৬ নং ইউনিয়ন পরিষদ এর অধিনে, আমরা ৫ টি পরিবার মিলে একটি টিউবওয়েল ব্যবহার করছি। আমাদের এই দুর্দশার সময় কিছু শীতবস্ত্র ও টিউবওয়েল দিয়ে কেউ পাশে দাঁড়ালে খুব উপকৃত হতাম।

এ বিষয়ে ৬ নং পীরগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাহাবুব আলমের সাথে মুঠোফেনে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

এসব অসহায় আদিবাসী ও শীতার্তদের জন্য উপজেলা প্রশাসন থেকে কোনো প্রকার সাহায্যের ব্যবস্থা আছে কিনা জানতে চাওয়া হলে, পীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার রেজাউল করিম বলেন, আমরা ইতি মধ্যে ইউপি চেয়ারম্যানদের মাধ্যমে কম্বল বিতরণ করেছি প্রয়োজনে খোঁজ নিয়ে আরো দেওয়ার চেষ্টা করবো।

বিডি

জনদুর্ভোগ

আপনার মতামত লিখুন :