লালমনিরহাটে গুলিসহ পুলিশের পিস্তল চুরি !

পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের দফায় দফায় বৈঠক

Bidhan DasBidhan Das
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০১:০৬ AM, ০৯ অক্টোবর ২০২০

আজিজুল ইসলাম বারী, লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ লালমনিরহাট ট্রাফিক পুলিশের উপ-পরিদর্শক (টিএসআই) আইয়ুব আলীর
ভাড়া বাসা থেকে গুলিসহ সরকারি পিস্তল চুরি হয়েছে।
বুধবার (৭ অক্টোবর) রাতে বিষয়টি নিয়ে জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের দফায় দফায় বৈঠক চলছে। এর আগে মঙ্গলবার রাতে শহরের বালাটারি এলাকায় অধ্যাপক হাবিবুর রহমানের বাসার নিচতলায় টিএসআই আইয়ুব আলী রুমে চুরির ঘটনা ঘটে।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, লালমনিরহাট শহরের বালাটারি এলাকায় সরকারি কলেজের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক হাবিবুর রহমানের মালিকানাধীন বাসার নিচতলায় ভাড়া থাকতেন লালমনিরহাট ট্রাফিক পুলিশের টিএসআই আইয়ুব আলী। সাম্প্রতি সময় ছুটি নিয়ে সপরিবারে গাইবান্ধার পলাশবাড়ি গ্রামের বাড়ি যান আইয়ুব আলী। ছুটিতে গেলেও তার পিস্তলটি ভাড়া বাসায় রেখে যান। একটি চোর চক্র বাসায় প্রবেশ করে চুরি করে পালিয়ে যায়।
বাসার মালিক ও স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে আইয়ুব আলী বাসায় প্রবেশ করার পর জানতে পারেন বাসার সব কিছু অক্ষত থাকলেও বেড রুমে থাকা ট্রাঙ্ক ভেঙে গুলিসহ পিস্তল, নগদ দুই লাখ টাকা ও দেড় ভরি স্বর্ণালংকার চুরি হয়েছে বলে পুলিশের দায়িত্বশীল একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে।
পিস্তল চুরির বিষয়টি দিনভর গোপন থাকলেও রাতে প্রকাশ পায়। এরপর জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা দফায় দফায়  বৈঠক করে চুরি যাওয়া জিনিসপত্র উদ্ধারে অভিযান শুরু করেন।
বাসার মালিক হাবিবুর রহমান জানান, মঙ্গলবার রাতে বাসার ভাড়াটিয়াদের শোরগোলে জানতে পারেন বাসার নিচ তলার ভাড়াটিয়া পুলিশের টিএসআই আইয়ুব আলীর বাসায় চুরি হয়েছে। তাৎক্ষণিক বিষয়টি মোবাইল ফোনে টিএসআইকে আইয়ুবকে জানিয়ে দেন তিনি।
লালমনিরহাট সদর থানার ডিউটি অফিসার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মঈনুল হক বলেন, পুলিশ অফিসারের বাসায় চুরির ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো জিডি বা অভিযোগ হয়নি।
বুধবার রাত ১১টায় সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ আলম বলেন, ‘সিনিয়র অফিসারদের উপস্থিতিতে আইয়ুব আলীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। গুলিসহ পিস্তলটি চুরি যাওয়া বাসায় ছিল কি না তা জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। পুরো ঘটনা তদন্তে পুলিশ মাঠে নেমেছে বলেও জানান তিনি।’
বিডি

অপরাধ

আপনার মতামত লিখুন :