রুহিয়ায় মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা

Bidhan DasBidhan Das
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৭:৩০ PM, ১৭ অক্টোবর ২০২০

নিজস্ব প্রতিনিধি: ঠাকুরগাঁওয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেনীর এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার দুপুরে রুহিয়া থানার ওয়াপদা কলোনী এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় আজ শনিবার (১৭ অক্টোবর) দুপুরে রুহিয়া থানায় একটি মামলা রুজু করা হয়েছে। তবে আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

পুলিশ জানায়, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ঘনিমহেশপুর ওয়াপদা পাড়া গ্রামের বাসিন্দা দিনমজুর শাহ আলম ওরফে সমারুর কন্যা রুহিয়া উম্মুল মুমেনীন হয়রত খাদিজাতুল কোবরা বালিকা দাখিল মাদরাসায় ৬ষ্ঠ শ্রেনীতে লেখাপড়া করে। সে স্কুলে যাতায়াতকালে প্রতিবেশি হারুন অর রশিদের বখাটে ছেলে মোশাররফ হোসেন(৩৭) প্রায় সময়ে তাকে উত্যক্ত করত এবং কু প্রস্তাব দিত।এতে মেয়েটি রাজি না হলে বখাটে মোশাররফ তার ক্ষতি করার সুযোগ খুঁজতে থাকে।

এদিকে গত বৃহস্পতিবার দুপুর আড়াইটায় মেয়েটিকে বাড়ির পাশে একাকি পেয়ে মোশাররফ হোসেন মুখ চেপে ধরে টেনে হেচড়ে পাশের ধান ক্ষেতে নিয়ে যায় এবং জোরপূবর্ক ধর্ষনের চেষ্টা চালায়। এসময় মেয়েটির চিৎকারে মাঠে ঘাস কাটতে থাকা কয়েকজন মহিলা ছুটে এলে বখাটে মোশাররফ পালিয়ে যায়। পরে প্রত্যক্ষদর্শীরা মেয়েটিকে উদ্ধার করে বাড়িতে পৌছে দেয় ।

এ ঘটনায় মেয়ের পিতা বাদী হয়ে বখাটে মোশাররফের বিরুদ্ধে ২০০৩ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন-এর ৯/(৪)(খ) ধারায় একটি মামলা দায়ের করে।

রুহিযা থানার ওসি চিত্তরঞ্জন রায় ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, একটি হাবাগোবা মেয়েকে ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগে থানায় মামলা রুজু করা হয়েছে। তবে আসামী পলাতক থাকায় তাকে গ্রেফতার করা সম্বব হয়নি।

বিডি

অপরাধ

আপনার মতামত লিখুন :