রানীশংকৈলে গম সংগ্রহ অভিযানে কৃষি অফিসের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ

tkeditortkeditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১২:৫২ AM, ১১ মে ২০১৬

রানীশংকৈল(ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি : বর্তমান সরকার প্রকৃত কৃষকের নিকট সরাসরি গম ক্রয় করার ঘোষনা দিলেও ঠাকুরগাওয়ের রানীশংকৈলে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে।

সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা যায়,উপজেলা কৃষি সম্প্রসারনের মাধ্যমে ইউনিয়ন পর্যায়ে প্রকৃত গম উৎপাদনকারী কৃষি ভুর্তকি কার্ডধারী কৃষকের তালিকা প্রনয়নের দায়িত্ব পড়ে স্ব স্ব ব্লকের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তাদের উপর।

অভিযোগ উঠেছে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তারা মাঠ পর্যায়ে গম উৎপাদনকারী কৃষকদের সাথে যোগাযোগ না করেই মনগড়াভাবে বেশিরভাগ গম অনাবাদী কৃষকদের নাম দিয়ে তালিকা প্রণয়ন করছেন। উপসহাকরী কৃষি কর্মকর্তাদের এমন কর্মকান্ডের কারণে  সরকারের প্রকৃত গম উৎপাদনকারী কৃষকদের কাছ থেকে সরাসরি গম ক্রয় করার ভিশন ভেস্তে যাচ্ছে এ উপজেলায়।

উপজেলার কাশিপুর ইউনিয়নের সামাদ জানান, প্রায় ৩০ বিঘা গম এবার আবাদ করেছি তবুও আমি সরকারের কাছে গম বিক্রি করতে পারছি না, অথচ যাদের নুন্যতম আবাদী জমি রয়েছে আবার গম আবাদ করে নি তারা ঠিকই কৃষি অফিসের গম সংগ্রহ অভিযানের কৃষকদের তালিকায় রয়েছে।একই এলাকার দেলোয়ার,তফিজুলও এ প্রতিনিধিকে অভিযোগ করে বলেন, আমরাও ২০ বিঘা গম আবাদ করেও তালিকায় নাম দেওয়ার জন্য কেউ আমাদের বলে নি। ৮নং নন্দুয়ার ইউনিয়নের জনৈক ব্যক্তি জানান, আমাদের এলাকার উপ-সহকারী কর্মকর্তা এলাকায় আসেন নি, শুনেছি সরকার নাকি মাঠ পর্যায়ে গিয়ে প্রকৃত গম উৎপাদনকারী কৃষকের তালিকা প্রণয়নের নির্দেশ দিয়েছেন অথচ কি অবস্থা আমাদের এলাকায়। তিনি আরো বলেন,আবার দেখছি কতিপয় প্রভাবশালী লোকজনের মনোনীত লোকেরা আমাদের এলাকা থেকে কৃষকদের ভুতর্কি কার্ডগুলো ৫ শ টাকা দরে কিনে নিচ্ছেন। এই ধরনের অভিযোগ মোটামুটি প্রত্যেক ইউনিয়ন ও পৌরসভায়।

এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা অনিয়মের কথা স্বীকার  করে জানান, আমাদের উপর রাজনৈতিক চাপ রয়েছে আমাদের কিছু করার নেই। তবে আমরা চেষ্টা করছি প্রকৃত কৃষকদের তালিকা করতে।

কৃষি অফিস সুত্রে জানা যায়, উপজেলায় মোট কৃষকের সংখ্যা প্রায় ৩৫ হাজার ।এবার গম আবাদ হয়েছে ১৪ হাজার ২শ ৫০ মেট্রিক টন।কৃষি অফিস আরো জানায় তাদের কাছে উপজেলার মোট ৩৫ হাজার কৃষকের মধ্যে ৪হাজার ৩শ জনের নামের তালিকা প্রণয়নের নিদের্শ এসেছে তারা সেটিই করেছেন বলে জানিয়েছেন। এ নিয়ে উপজেলায় কৃষকদের মাঝে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা যাচ্ছে। যে কোন মহুর্তে কৃষকদের বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হতে পারে বলে একটি বিশ্বস্ত সুত্রে জানা গেছে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিদ হাসানের সাথে যোগাযোগ করেও পাওয়া যায় নি॥

আনোয়ার হোসেন আকাশ

আপনার মতামত লিখুন :