রাণীশংকৈলে বাড়িঘর লুটপাটের অভিযোগ করায় বাড়িতে ফিরতে পারছেনা বাদী !

Bidhan DasBidhan Das
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১২:২৯ AM, ২৩ অগাস্ট ২০২০

রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল উপজেলায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে সঙ্গবদ্ধভাবে বাড়িতে প্রবেশ করে বেধড়ক মারধর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। গত ১৮ আগস্ট মঙ্গলবার উপজেলার আরাজি চন্দনচহট (মালিবস্তি) গ্রামের সামসুউদ্দিনের ছেলে মাহামুদুল হকের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।
এ ব্যাপারে ভুক্তভোগি মাহামুদুল গত ১৯ আগস্ট বাদী হয়ে রাণীশংকৈল থানায় ১২ জনের নামে লিখিত অভিযোগ করেন।
অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে গত ৯ আগস্ট রবিবার রাত ১০ টার দিকে মাহামুদুল তার বোনের বাড়িতে যাওয়ার পথে কাশিপুর ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ফজলুর  রহমান তাকে মুঠোফোনে পাশ্ববর্তী মহারাজা বাজারে ডেকে নেয়। সেখানে সে তার লোকজনসহ মাহামুদুলকে বেধড়ক মারপিট করে এবং তার কাছে থাকা ১ লক্ষ ৫৫ হাজার টাকা ও একটি মোটরসাইকেল ছিনিয়ে নিয়ে যায়। ঐ রাতেই অসুস্থ মাহামুদুলকে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালে ভর্তি করান।
গত ১২ আগস্ট মাহামুদুল হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র পেয়ে ঐদিনেই জেলা আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং সি আর ১০৯। এই মামলার জের ধরে গত ১৮ আগস্ট ফজলুর রহমান তাঁর দলবল লাঠিসোটা নিয়ে মাহামুদুলের বাড়িতে চড়াও হয়। হামলাকারীরা তার পরিবারের লোকজনকে বেধড়ক মারপিট করে ও ১লক্ষ ২৫ হাজার টাকা, স্বর্ণালংকার, ৩ টি গরু, ৩ টি ছাগল, আসবাপত্র ও অন্যান্য মালামাল নিয়ে যায়।
এ ঘটনায় মাহামুদুল থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে ফজলুর বাড়ি থেকে লুট হওয়া কিছু মালামাল উদ্ধার করে। পরদিন ১৯ আগস্ট বুধবার এ ঘটনায় মাহামুদুল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ  করেন।
এ ব্যপারে থানার ওসি এস এম জাহিদ ইকবাল বলেন, বাদীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে ঘটনার তদন্ত অব্যাহত আছে। তিনি আরো বলেন, ইতোমধ্যে স্থানীয় নেতারা  বিষয়টির আপোষ মিমাংসা করবেন বলে আমাকে জানিয়েছেন।
এদিকে বিবাদী পক্ষের লাগাতার হুমকিতে গত ৯ আগস্ট থেকে এখন পর্যন্ত নিজ বাড়িতে ফিরতে পারছেন না মাহামুদুল।
বিডি

অপরাধ

আপনার মতামত লিখুন :