রাণীশংকৈলে দুই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মাঠ ঠিকাদারের দখলে

tkeditortkeditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১২:৪৬ AM, ২৩ মার্চ ২০১৭

এ.এইচ আকাশ, রাণীশংকৈল (ঠাকুরগাও) প্রতিনিধি : একটু বাতাস হলেই শ্রেণী কক্ষে অজস্র বালু ঢুকে, এতে সময়ের আগেই স্কুল ছুটি দিয়ে দেয়। আমরা খেলাধুলা করতে পারি না । প্রায় ১ মাস ধরে এমন ঘটনা ঘটে আসছে। আমরা এই অত্যাচার থেকে পরিত্রাণ পেতে চাই, ঠিকমতো ভাল পরিবেশে ক্লাশ করতে চাই। এমন আকুতি ঠাকুরগাঁয়ের রাণীশংকৈল উপজেলার লধাবাড়ী নিন্ম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের। এছাড়াও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন অভিভাবকসহ এলাকাবাসী।

উপজেলার পারকুন্ডা লধাবাড়ীতে ২টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অবরুদ্ধ করে একটি ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান ইটের খোয়া, বালু অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি দিয়ে কার্যত অবরুদ্ধ করে রেখেছেন লধাবাড়ী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও নিন্ম মাধ্যমিক বিদ্যালয় দুটি।। দুই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের খেলার মাঠ একটি। প্রতিষ্ঠান ২টির বারান্দা ছাড়া মাঠের ১ ইঞ্চিও ফাঁকা জায়গাটুকু নেই। প্রায় ১০ ফিট উচ্চতায় পুরো মাঠজুড়ে বালু ইটের খোয়া মিশ্রিত করে বিশাল স্তুপ করে রাখা হয়েছে।

এছাড়াও মাঠের আরেক পাশে প্রায় ২০ জন লোক ইটের খোয়া ভাঙ্গছেন স্কুলে প্রবেশের মত সেখানে কোন ফাঁকা জায়গাটুকুও নেই।

সরজমিনে গিয়ে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দুইটির এমনই চিত্র নজরে আাসে। অন্যদিকে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান বলছে আমরা স্কুল কৃর্তপক্ষের অনুমতি নিয়েই মাঠ ব্যবহার করছি।

জানা যায়, এই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানটির নাম রাম বাবু ট্রের্ডাস। ঠাকুরগাঁও সদরের বাসিন্দা রাম বাবু প্রভাবশালী একজন ঠিকাদার। তিনি ঐ এলাকায় ৪ কিঃমিঃ সরকারী রাস্তা নির্মাণের কাজ এভাবেই শেষ করবেন বলে ধারণা স্থানীয়দের। ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের লোকজন বিদ্যালয়ের একটি শ্রেণী কক্ষও সার্বক্ষণিক ব্যবহার করে আসছেন।

নিন্ম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক নরেশ বলেন, এভাবে মাঠ ভর্তি করে বালু ইট রাখলে তো সমস্যা হচ্ছেই তারপরও এটা প্রধানশিক্ষকের বিষয়।

ঐ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইউপি চেয়ারম্যান জিতেন্দ্র নাথ রায় ঠিকমতো স্কুলে যান না। তাকে স্কুলে না পেয়ে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, হ্যা আমি ঠিকাদারকে স্কুলের মাঠটি ব্যবহার করার অনুমতি দিয়েছি। শিক্ষার্থীদের সমস্যা হচ্ছে  এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, কে আপনাকে বলেছে সমস্যা হচ্ছে, তার নাম বলেন? বলেই মিটিংয়ে ব্যস্ত আছি বলে ফোন কেটে দেন।

এ প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খন্দকার মোঃ নাহিদ হাসান বলেন, বিষয়টি দুখজনক। সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে আমি প্রয়োজনী ব্যবস্থা নিব।

জনদুর্ভোগ

আপনার মতামত লিখুন :