রডের পরিবর্তে বাঁশ ব্যবহার করায় দুদকের হাতে গ্রেফতার হলো ঠিকাদার ও প্রকৌশলী

tkeditortkeditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৯:১০ PM, ১৪ এপ্রিল ২০১৬

গাইবান্ধা সংবাদদাতা : গাইবান্ধা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের উপসহকারী প্রকৌশলী আরিফ বিল্লাহ এবং ঠিকাদার আবদুল খালেককে শৌচাগার নির্মাণে রডের পরিবর্তে বাঁশ ব্যবহারের ঘটনায়  গতকাল বুধবার গ্রেপ্তার করা হয়েছে। দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) রংপুর অঞ্চলের কর্মকর্তারা জেলা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল কার্যালয় থেকে তাঁদের আটক করেন। পরে তাঁকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

গাইবান্ধা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী হাসান বলেন, সদর উপজেলার মেঘডুমুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শৌচাগার (ওয়াশ ব্লক) নির্মাণে লোহার রডের পরিবর্তে চিকন বাঁশ ব্যবহারের অভিযোগে দুদক রংপুর অঞ্চলের কর্মকর্তারা ওই দুজনকে গতকাল বিকেলে আটক করে সদর থানায় সোপর্দ করে। সন্ধ্যায় তাঁদের গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ ও জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর কার্যালয় সূত্র জানায়, গত বছরের সেপ্টেম্বরে ৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা ব্যয়ে মেঘডুমুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শৌচাগার (ওয়াশ ব্লক) নির্মাণকাজ শুরু হয়। সাদুল্যাপুর উপজেলার ঠিকাদার আবদুল খালেক ওই কাজের দায়িত্ব পান। নীতিমালা অনুযায়ী বিভিন্ন ঢালাইয়ের কাজে ১০ থেকে ১২ মিলিমিটার লোহার রড ব্যবহার করার কথা। কিন্তু নির্মাণকাজের ঢালাইয়ে রডের পরিবর্তে বাঁশ ব্যবহার করা হয়।

এ ঘটনায় গত সোমবার রংপুর জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী আল আমিনকে আহ্বায়ক করে চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন গাইবান্ধা জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আমিরুল ইসলাম, প্রকল্প পরিচালকের কার্যালয়ের সহকারী প্রকৌশলী আলমগীর হোসেন ও দিনাজপুর জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের সহকারী প্রকৌশলী। জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের শৌচাগার প্রকল্প পরিচালকের কার্যালয় থেকে ওই কমিটি গঠিত হয়। সোমবার বিকেলে কমিটির সদস্যরা সরেজমিনে বিদ্যালয়ের শৌচাগার নির্মাণকাজ পরিদর্শন করেন। তদন্তে শৌচাগারের একটি জানালা ও একটি দরজার ওপরের ঢালাইয়ে (লিনটন) রডের পরিবর্তে বাঁশ ব্যবহার করার অভিযোগ প্রমাণিত হয়।

এ নিয়ে গত সোমবার দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমে ‘শৌচাগার নির্মাণে রডের পরিবর্তে বাঁশ ব্যবহার!’ শিরোনামে  প্রতিবেদন প্রকাশিত হলে ঘটনাটি সকলের নজরে আসে।

অপরাধ

আপনার মতামত লিখুন :