যুবকের পেটে পাওয়া গেল টুথব্রাশ ও কাঁটা চামচ

tkeditortkeditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৭:৪৯ PM, ২৩ মার্চ ২০১৬

ময়মনসিংহ সংবাদদাতা : ময়মনসিংহে মানসিক ভারসাম্যহীন এক যুবকের পেটে অস্ত্রোপচার করে ১৯টি টুথব্রাশ ও একটি কাঁটা চামচসহ বিভিন্ন জিনিসপত্র বের করেছেন চিকিৎসকরা।  যুবকের নাম শামিম (৩২)। বর্তমানে ওই যুবক সুস্থ্য রয়েছেন।
গত শুক্রবার শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে শামিমের পেটে অস্ত্রোপচার করেন ডা. শফিকুল ইসলামসহ অন্য চিকিৎসকরা।

অস্ত্রোপচার শেষে শামিমের পেট থেকে টুথব্রাশ ও কাঁটা চামচ ছাড়াও ৪টি মেসওয়াক, ২টি প্লাস্টিকের টুকরো, ১ টুকরো কাপড় এবং ব্যাটারির ভেতরে থাকা ২টি সীসার দণ্ড পাওয়া যায়।

এ বিষয়ে ডা. শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘টুথব্রাশগুলো সম্পূর্ণ আস্ত ছিল দেখে আমরা বিস্মিত হয়েছি। এত বড় এক একটি টুথব্রাশ আস্ত অবস্থায় তার পেটে ঢুকলো কি করে? তিনি বলেন, মানসিক ভারসাম্যহীন হওয়ায় শামিম দিনের পর দিন এসব খেয়েছে। হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেয়ার পর তার পরিবারের সদস্যদের উচিত হবে দ্রুত তার মানসিক চিকিৎসা শুরু করা।

তিনি আরও জানান, সম্প্রতি পেটে ব্যথা ও বমির উপসর্গ নিয়ে শামিমকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন তার আত্মীয়রা। পরে তার পেটে এক্সরে করে একটি কাঁটাচামচসহ তিনটি ধাতব টুকরার অস্তিত্ব আবিষ্কার করার পর চিকিৎসকেরা অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন। অস্ত্রোপচারের জন্য শামিমকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলে প্রথম দফায় তিনি পালিয়ে যান। পরে তাকে আবার ধরে নিয়ে আসেন তার স্বজনরা। পরে তাকে ময়মনসিংহের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করে সেখানেই তার পেটে অস্ত্রোপচার করেন চিকিৎসকেরা।

ডা. শফিকুল ইসলাম বলেন, এটা বিরল একটি ঘটনা। চিকিৎসা বিজ্ঞানে এরকম ঘটনার নজির পাওয়া যায় না।

জেলার খবর

আপনার মতামত লিখুন :