মুঠোফোনে কথা বলায় স্ত্রীর মাথা কেটে লাশ গুম!

adminadmin
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১০:১৩ PM, ৩০ অক্টোবর ২০১৮

খাগড়াছড়িঃ খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা উপজেলার কাজিপাড়া গ্রামে মোবাইলে অন্য পুরুষের সঙ্গে কথা বলায় এক নারীকে গলা কেটে হত্যা করেছেন তার স্বামী। ওই নারীকে হত্যার পর তার মস্তক বিচ্ছিন্ন মরদেহ বস্তায় ভরে নালায় ফেলা হয় এবং খণ্ডিত মস্তক ফেলা হয় ঘটনাস্থল থেকে তিন-চার কিলোমিটার দূরে একটি কবরস্থানে।

নিহত ওই নারী সুমি ইসলাম (২০)। এবং তার স্বামী অভিযুক্ত জাহিদ হোসেন রাজু (৩৭)।

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছে। প্রাথমিক অবস্থায় অজ্ঞাত লাশ হিসেবে ওই নারীর মস্তকহীন মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে অনুসন্ধানের মাধ্যমে সন্দেহভাজন খুনি হিসাবে জাহিদ হোসেন রাজুকে আটক করে পুলিশ।

রাজুর বরাত দিয়ে সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, স্ত্রী সুমি ইসলাম প্রায়ই বিভিন্ন ছেলের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলত। এ নিয়ে তাদের মধ্যে প্রায়ই ঝগড়া হতো। আর এরই জেরে গত ২৬ অক্টোবর মধ্যরাতে রাজু তার পরিচিত আবদুল জলিল ও ফেরদৌসীকে নিয়ে পরিকল্পিতভাবে সুমি ইসলামকে প্রথমে নাইলনের রশি দিয়ে শ্বাসরোধ করে এবং পরে গলা কেটে হত্যা করে।

পরে মস্তকবিহীন দেহটি বস্তায় ঢুকিয়ে বস্তার মুখ বেঁধে হালিশহরের ছোটপুল ইসলাম মিয়া ব্রিকফিল্ডের ২ নম্বর রোডে খানসাহেব ও জাবেদের বাড়ির মাঝখানে নালার ভেতর ফেলে দেয়া হয়।

 

ঠাখ/আরএফ

জেলার খবর

আপনার মতামত লিখুন :