মাদলের তালে নেচে-গেয়ে কারাম উৎসবে মেতেছিল ঠাকুরগাঁওয়ের আদিবাসিরা (ভিডিও সহ)

Bidhan DasBidhan Das
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১০:০৮ PM, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ মাদলের তালে তালে নেচে-গেয়ে কারাম উৎসবে মেতেছিল ঠাকুরগাঁওয়ের আদিবাসি সম্প্রদায়ের মানুষেরা।প্রতি বছরের ন্যায় এবছরও বর্ণিল আয়োজনের মধ্য দিয়ে উদযাপিত হয় আদিবাসিদের ঐতিহ্যবাহি কারাম উৎসব। বৃহস্পতিবার রাতভর গ্রামের আখড়ায় পুঁতে রাখা কারাম (খিল কদম) ডালকে ঘিরে অনুষ্ঠিত হয় এ নাচ-গান।

শুক্রবার সকালে আখড়া থেকে কারাম ডাল উঠিয়ে গ্রামের কিশোর-কিশোরী, তরুণ-তরুণীসহ সব বয়সের নারী-পুরুষ নেচে-গেয়ে গ্রামের বাড়ি বাড়ি ঘুরে, শেষে গ্রামের পুকুরে বিসর্জন দেয়।

প্রতিবছর ভাদ্র মাসে আদিবাসীদের মঙ্গলের প্রতীক কারাম গাছকে ঘিরে ওঁরাও, মুন্ডাসহ ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষ এ উৎসবের জন্য অধীর আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষা করে থাকে।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর সদরের পাঁচপীরডাঙ্গা গ্রামে সন্ধ্যার পর পূজা অর্চনা শেষে পরিবারের স্বজনদের নিয়ে বাড়ির উঠুনেই সমান তালে হাত পায়ের দোলনে মুখরিত হয়ে উঠে আদিবাসিদের কারাম উৎসব। আর এ কারাম উৎসবকে ঘিরে সালন্দর ইউনিয়নের আশপাশের গ্রাম জামুরীপাড়া, মজাতিপাড়া, তেলিপাড়াসহ ৫টি গ্রামের মানুষ তাদের নাচ দেখতে ভিড় জমায়। দীর্ঘ সময় তাদের এমন অসাধারণ নৃত্য দেখে খুশি স্থানীয়রা। এর আগে অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিদের সৌহার্দপুর্নভাবে বরণ করেন আদিবাসি মেয়েরা।

উৎসবে আমন্ত্রিত অতিথিদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অ্যাড. অরুনাংশু দত্ত টিটো, সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তানভিরুল ইসলাম, জাতীয় আদিবাসি পরিষদ জেলা শাখার উপদেষ্টা অ্যাড. ইমরান হোসেন, সালন্দর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মাহবুব আলম মুকুল প্রমুখ।

জেলা আদিবাসি পরিষদের তথ্যমতে, জেলায় একযোগে ৯টি স্থানে এ কারাম উৎসব অনুষ্ঠিত হয়। আর এ জেলায় ৬৮ হাজার আদিবাসি সম্প্রদায়ের বসবাস।

ভিডিওটি দেখতে ছবিতে ক্লিক করুন :

বিডি

জেলার খবর

আপনার মতামত লিখুন :