ভয়াবহ অগ্নিকান্ডে ঠাকুরগাঁওয়ের ঝাড়গাঁয়ে ২০০টি ঘর ভস্মিভূত

tkeditortkeditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১২:২৫ AM, ২০ মার্চ ২০১৬

ঠাকুরগাঁওয়ের খবর : ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার ২ নং আখানগর ইউনিয়নের উত্তর ঝাড়গাঁ গ্রামের প্রায় ২০০টি ঘর ভস্মিভূত হয়েছে।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, শুক্রবার আনুমানিক বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে উত্তর ঝাড়গাঁ গ্রামের শামসুলের স্ত্রী চুলায় ভাত বসিয়ে পাশের ঘরে টিভি দেখতে যায়। এর মধ্যে আগুন চুলা থেকে ঘরের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে। এলাকাটি ঘনবসতি হওয়ায় আগুন দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে পার্শ্ববর্তী ঘরগুলোতে।ফলে ২০-২৫মিনিটের মধ্যে পুরো গ্রাম ভস্মিভূত হয়ে যায়।ফায়ার সার্ভিস ঘটনাস্থলে পৌঁছতে পৌঁছতে স্থানীয়রা প্রায় আগুন নিয়ন্ত্রনে নিয়ে আসে।

শামসুল জানান, তিনি একজন দিনমজুর রিক্সাওয়ালা, তার পরিবারে চার জন সদস্য। তাদের পাঁচটি ঘর ছিল এবং ঘরের মালামালসহ সব মিলিয়ে প্রায় দুই লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধন হয়েছে। দিনের পর দিন কষ্ট করে নগদ ৭০ হাজার টাকা জমিয়েছিলেন।কিন্তু আগুন কোন কিছুই বাদ রাখেনি সব পুড়ে ছাই হযে গেছে। একই আক্ষেপ শহীদুলের, তার প্রায় ৭০ হাজার টাকার ক্ষতি সাধন হয়। গমের ব্যবসার জন্য বাড়িতে রাখা নগদ ১২ হাজার টাকা পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। আরেক ক্ষতিগ্রস্ত শেখ ফরিদ জানান, তার প্রায় পাঁচ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধন হয়েছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, প্রতিটি পরিবার খোলা আকাশের নিচে অবস্থান করছে। পড়নের কাপড় ছাড়া কেউ কিছুই রক্ষা করতে পারেনি।
আগুনের খবর পেয়ে স্থানীয় আখানগর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি এরশাদুল হক ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে শুকনো খাবার প্রদাণ করেন। ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি রেজাউল ইসলাম প্রতিটি পরিবারের মাঝে শাড়ী ও লুঙ্গীর ব্যবস্থা করেন। এলাকার দানশীল ব্যক্তি হিসেবে খ্যাত আমির হোসেন রাতে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের মাঝে জেনারেটরের মাধ্যমে আলোর বন্দোবস্ত করেন এবং সকল ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের সদস্যদের জন্য রাতের খাওয়ারের ব্যবস্থা করেন।
এলাকাবাসী সরকারি দফতর ও বিভিন্ন এনজিও এবং দানশীল ব্যক্তিদের ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলোর পাশে দাড়ানোর আহ্বান জানান।

জনদুর্ভোগ

আপনার মতামত লিখুন :