বীরগঞ্জে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে প্রেমিকার অবস্থান

tkeditortkeditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০২:৫৫ AM, ১৭ জুন ২০১৬

মোঃ নজরুল ইসলাম খান বুলু, বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার সাতোর ইউনিয়নের চৌপুকুরিয়া গ্রামের বশির উদ্দিনের ছেলে হাবিবুর রহমান হাফিজ (২৮) প্রতিবেশী ইউসুফ আলীর মেয়ে সালমা (২২)র ভাল লাগা থেকে ভালবাসা ও প্রেম হয়। দীর্ঘ ৫ বছর থেকে প্রেমের এক পর্যায় ৪ মাস পূর্বে দৈহিক সম্পর্কে লিপ্ত হয় তারা।দৈহিক সম্পর্কের ফলে প্রেমিকা সালমা অন্তঃসত্বা হয়।সে এই সু-সংবাদটি দিলে  হাফিজ প্রেমের সম্পর্ক অস্বীকার করে প্রতারনার আশ্রয় নেয়। সালমা বিবাহের দাবি করলে আজকাল করে সময় ক্ষেপন করে প্রেমিক হাফিজ। সালমা স্থানীয় মেম্বার-চেয়ারম্যান ও দশ-সমাজে বিচার চেয়ে বিচার পায়নি। অবশেষে গত সোমবার সকালে প্রেমিকা একাই প্রেমিকের বাড়ীর শোওয়ার ঘরে আশ্রয় নেয়। সালমার উপস্থিতির কারনে পরিবারের অন্যদের চাপে প্রেমিক  হাফিজ বাড়ী থেকে পালিয়ে যায়। সংবাদ পেয়ে উপজেলা সদর থেকে ১৫ কিলেমিটার উত্তর পশ্চিমে প্রেমিকের বাড়ীতে গিয়ে প্রেমিকা সালমার সাথে সাক্ষাত করা হলে সে জানায়, মৃত্যু না হওয়া পর্যন্ত প্রেমিকের বাড়ী ত্যাগ করবো না। চৌপুকুরিয়া গ্রামের সফিকুল, কামাল, কমলা রায়, রফিক, সইফুল, ইছাহাক, ইয়াসমিন, মৌসুমী, আসমা রনিসহ শতশত হিন্দু-মুসলিম নারী-পুরুষ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বিবাহের পক্ষে অবস্থান নেয়। গ্রাম পুলিশ সিরাজুল, ইউপি সদস্য আবুসামা ও চেয়ারম্যান আলহাজ্ব রেজাউল করিম শেখ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। ওসি মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন সংবাদের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, প্রেমিক পক্ষ সময় নিয়েছে আজ শেষ দিন রাতে বিবাহের কাজ সমাপ্ত না হলে গ্রেফতার করে ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হবে।

অপরাধ

আপনার মতামত লিখুন :