বীরগঞ্জে কনের নির্যাতনে মহিলা ঘটক আহত

tkeditortkeditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০২:৫৫ AM, ০৮ জুন ২০১৬

বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি:  দিনাজপুর উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের মিরাটঙ্গী গ্রামের জহির উদ্দিন সম্প্রতি জামাই বাবুলকে ঘরে দরজা আটকিয়ে মারপিট করে। জামাই কনেকে বাড়ীতে নিয়ে গিয়ে কনেকে নির্যাতন ও আহত করে। পিতার গৃহে ফিরে এসে মঙ্গলবার কনে পারভিন, মা-মোর্শেদা ও ভাইস মশিউর প্রতিবেশী ঘটক আনিছুরের স্ত্রী সেলিনা ঘটককে রাস্তায় আটকিয়ে মারপিট ও গুরুত্বর আহত করেছে। মায়ের চিৎকারে ছেলে ৭ম শ্রেণীর ছাত্র সেলিম (১৩) ও মেয়ে চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্রী আনিকা (১০) মাকে উদ্ধারে এগিয়ে গেলে তাদেরকে পিটিয়ে আহত করা হয়। তাদের চিৎকারে প্রেিবশীরা এসে আহতদের উদ্ধার ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সংবাদ পেয়ে আহত ঘটক ও সন্তানদের সাথে হাসপাতালে সাক্ষাত করা হয়। আহত ঘটক সেলিনা অভিযোগ করে জানান, কনে পারভীন ও অন্যরা  আমার কানের দুল ও নাকের ফৃল ছিনিয়ে নিয়েছে। শশুর বাড়ীতে নির্যাতনের ঘটনায় বরকে কনের বাড়ীতে ঘরে দরজা আটকিয়ে মারপিট করে। জামাই শশুর বাড়ী থেকে নিজ বাড়ীতে ফিরে কনে পাল্টা মারপিট ও আহত করেছে। মোহনপুর ইউপি চেয়ারম্যান দীনেশ চন্দ্র মহন্ত সংবাদের সত্যতা স্বীকার করেছেন। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল।

অপরাধ

আপনার মতামত লিখুন :