বিয়ের প্রলোভনে প্রেমিকাকে ডেকে নিয়ে প্রেমিকসহ বন্ধুরা মিলে গণধর্ষণ

চার ধর্ষক আটক

Bidhan DasBidhan Das
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৯:১১ PM, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০

গাইবান্ধা প্রতিনিধি : গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভার শিববাড়ি এলাকায় বিয়ের প্রলোভনে প্রেমিকা(১৯)কে ডেকে নিয়ে প্রেমিক ও তার বন্ধুরা মিলে একটি বাড়িতে দু’দিন আটকে রেখে গণধর্ষণ করেছে।

পরে ধর্ষণের শিকার মেয়েটি কৌশলে সেকান থেকে পালিয়ে পুলিশে অভিযোগ দিলে পুলিশ ওই রাতেই অভিযান চালিয়ে ৪ ধর্ষককে আটক করে।

পুলিশ জানায়, পৌর এলাকার চাষকপাড়া গ্রামের আনারুল হকের ছেলে শাহাদত হোসেনের মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ফরিদপুর জেলার চক হরিরামপুর গ্রামের ওই তরুণীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। দীর্ঘদিন ধরে এ সম্পর্ক চলাকালে বিয়ের কথা বলে গত বুধবার ওই তরুণীকে নিজ এলাকায় ডেকে আনে শাহাদত।

ওই তরুণী গোবিন্দগঞ্জে এলে শাহাদত পৌরসভার শিববাড়ী এলাকার একটি বাড়িতে তুলে তাকে আটকে রাখে। পরে শাহাদত ও তার বন্ধুরা মিলে ওই তরুণীকে গণধর্ষণ করে। সেখানে দু’দিন ধরে নির্যাতনের শিকার হয়ে তরুণী ওই বাড়ি থেকে কৌশলে বের হয়ে গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় পালিয়ে গোবিন্দগঞ্জ থানায় গিয়ে অভিযোগ করে। ওই অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশের একাধিক টিম পৌর এলাকার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ঘটনার সাথে জড়িত ৪ জনকে আটক করেছে।

আটক যুবকরা হলো- শাহাদৎ হোসেন (২০) ও তার সহযোগী বন্ধু ফুলবাড়ী নাচাই কোচাই গ্রামের আব্দুর রহমান সরকারের ছেলে জহুরুল সরকার (২৬), পৌরসভার বোয়ালিয়া (নয়াপাড়া) গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে জাহাঙ্গীর মিয়া (৩৫) এবং থানাপাড়া (কসাইপাড়া) গ্রামের মৃত ইউনুস আলীর ছেলে জাহিদ হাসান (২৭)।

গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মেহেদী হাসান জানান, ধর্ষণের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে আটককৃতদের বিরুদ্ধে নারী-শিশু নির্যাতন দমন আইনে থানায় একটি মামলা হয়েছে। অভিযুক্ত চার আসামীকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে এবং অন্য আসামীদের আটক করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

বিডি

অপরাধ

আপনার মতামত লিখুন :