বালিয়াডাঙ্গীতে তুচ্ছ ঘটনায় কিশোরের চোখে ছাগল বাঁধা খুট ঢুকিয়ে দিলো প্রতিপক্ষ !

Bidhan DasBidhan Das
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১২:১৮ AM, ২০ অগাস্ট ২০২০

নিজস্ব প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার ভানোর ইউনিয়নের বিশ্রামপুর গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের নির্মম হামলার শিকার হয়েছে আন্তনী দাস (১৬) নামে এক কিশোর। ঘটনাটি ঘটেছে চলতি আগষ্ট মাসের ৮ তারিখে। এ ঘটনায় আহত কিশোরের বাবা পিউসি দাস বাদী হয়ে গত ১২ আগষ্ট ঠাকুরগাঁও বিজ্ঞ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আমলী আদালতে সামসুল (৫৫) ও দিলদার আলী (৫০) নামে ২ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করলে বালিয়াডাঙ্গী থানা পুলিশ মামলার এক নং আসামী দিলদার আলীকে আটক করেছে।

এদিকে মামলার এক নং আসামী গ্রেফতার হওয়ায় আসামী পক্ষ মামলা তুলে নিতে বাদী পরিবারকে বিভিন্ন হুমকি-ধামকি, ভয়ভীতি প্রদর্শণসহ মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর হুমকি দিয়ে আসছে বলে অভিযোগ বাদী পরিবারের।

মামলার বিবরণে জানা যায়, গত ৮ আগষ্ট আহত আন্তনী দাসসহ এলাকার শিশুরা বিকেলে বিশ্রামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে ফুটবল খেলছিলো। এসময় ফুটবলটি মাঠ থেকে গড়িয়ে প্রতিবেশি সামসুল এর ছাগলের গায়ে লাগে। এসময় আন্তনী দাস বলটি আনতে গেলে তাকে সামসুল ও দিলদার দুজনে মিলে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেভ এক পর্যায়ে সামসুল ছাগল বাঁধা বাশের খুট দিয়ে আন্তনীর গলায় ও চোখে আঘাত করে।

পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

আহত আন্তনীর বাবা পিউস দাস জানান, আমরা গুটি কয়েক খ্রীষ্টাণ সম্প্রদায়ের মানুষ এই গ্রামে বাস করি, কিন্তু প্রতিনিয়ত আমাদের কটু কথা শুনতে হয়, যেন আমরা এদেশের নাগরিক না। এছাড়া মামলার এক নং আসামী দিলদারের নামে একটি হত্যা মামলা আদালতে বিচারাধীন। এদিকে পুলিশের হাতে আটক দিলদারের ছেলে সেনাবাহিনীতে চাকুরীর সুবাদে মোবাইলে বিভিন্ন হুমকি-ধামকিসহ মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে যাচ্ছে। পিউস দাস কান্নাজড়িত কন্ঠেে আরও বলেন, আসামীরা প্রভাবশালী হওয়ায় আমরা থানাতেও মামলা করার সাহস পাইনি, তাই কোর্টে মামলা করেছি। আমি আমার ছেলের উপর অন্যায়-অত্যাচারের সুবিচার চাই।

এ ঘটনায় দিলদার আলী নামে এক আসামী আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসি মোঃ মোসাব্বেরুল হক জানান, মামলার অন্য আসামীকে গ্রেফতারের জোর চেষ্টা অব্যাহত আছে।

বিডি

অপরাধ

আপনার মতামত লিখুন :