বাবা-ভাইয়ের পথেই হাটছেন মির্জা ফয়সল আমিন

tkeditortkeditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০১:৪০ AM, ২৭ জুলাই ২০১৬

ফরিদুল ইসলাম(রঞ্জু) : বাপ,ভাইয়ের পথেই হাটছেন মির্জা ফয়সল আমিন।ঠাকুরগাও পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হবার পর থেকেই কাজ করে চলেছেন পৌরসভার উন্নয়নে।সকলের ধারণা পাল্টে দিয়ে ছুটে চলেছেন সাধারণ মানুষের পাশে।

মঙ্গলবার(২৬ জুলাই) এভাবেই ধরা পড়লেন ক্যামেরায় ঠাকুরগাও রোড এলাকায়।

রোডের বাজার সংলগ্ন রাস্তা গুলো দীর্ঘদিন ধরে চলাচলের অযোগ্য হয়ে আছে।রোড এলাকার বাসিন্দাদের অনুরোধে আজ গিয়েছিলেন রোড এলাকায় ।বাজার সংলগ্ন রাস্তা গুলো, জলাবদ্ধতা ও কর্দমাক্ত হওয়ায় চলাচলে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন এলাকাবাসী ও ব্যাবসায়ীরা।তিনি তাদের আশ্বস্ত করে আসেন বর্ষা শেষ হলেই সর্ব প্রথম তিনি এই রাস্তার কাজে হাত দিবেন।তিনি বলেন,প্রথম শ্রেণীর পৌরসভার রাস্তা এরকম থাকতে পারেনা।

রোড এলাকার ব্যাবসায়ী মকবুল,সাদেকুল সহ অনেকেই জানান,মেয়র সাহেবকে অভিযোগ জানাবার সাথে সাথেই তিনি এই এলাকা পরিদর্শনে এসেছেন।আমরা তার কাছে কৃতজ্ঞ ।এর আগে কয়েকদিন আগে কলেজপাড়া মহল্লার নিম্নাঞ্চল এক হাটু পানি মাড়িয়ে ঘরে ঘরে গিয়েছিলেন তিনি।ঠাকুরগাও উন্নয়নের অন্যতম রুপকার তার প্রায়াত বাবা মির্জা রুহুল আমিন এভাবেই ছুটে যেতেন মানুষের পাশে।তিনি ঠাকুরগাও পৌরসভার চেয়ারম্যান ছিলেন,এর পর গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের কৃষি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রি ছিলেন।মির্জা রুহুল আমিনের বড় ছেলে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরও ছিলেন পৌরসভার চেয়ারম্যান। পরবর্তিতে তিনি ২০০১ সালে বি,এন,পি সরকারের আমলে প্রথমে কৃষি প্রতিমন্ত্রী ও পরে বেসামরিক বিমান ও পর্যাটন মন্ত্রাণালয়ের প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেন।বর্তমানে তিনি বি,এন,পির কর্ণধার হিসেবে বি,এন,পির মহাসচিবের দায়িত্ব পালন করছেন।তাদেরি উত্তরসূরি হিসেবে মির্জা ফয়সল আমিন ছুটে চলেছেন মানুষের মনের কথা জানতে।

কিছুদিন আগেও ঠাকুরগাও এর মানুষ ঠাকুরগাও বি,এন,পিতে মির্জা আলমগীরের বিকল্প খুঁজে পাচ্ছিলেন না।ঠাকুরগাও এর রাজনৈতিক মহল মনে করেন মির্জা ফয়সল আমিন এভাবে কাজ করে গেলে মির্জা আলমগীরের পরে তাকে ভাবতে শুরু করবেন।

জনদুর্ভোগ

আপনার মতামত লিখুন :