বাবাকে কুপিয়ে খুন; অনুশোচনায় ছেলের আত্মহত্যা

tkeditortkeditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০২:১২ AM, ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৬

পিরোজপুর সংবাদদাতা : পিরোজপুর জেলার মঠবাড়িয়া উপজেলার মিরুখালীতে সোমবার বিকেলে ছেলের হাতে বাবা খুন হয়েছেন ৷ এছাড়া মা ও তিন জনকে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে ৷ পরে ছেলে গলায় ফাঁস লাগিয়ে অাত্মহত্যা করেছে ৷

এলাকাবাসী সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার মিরুখালী ইউনিয়নের নাগ্রাভাংগা গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক অা: জলিল মাষ্টার(৬৫)কে সোমবার বিকেলে উপুর্যপুরী কুপিয়ে নিজের ছেলে মিরুখালী কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র জহির (২০) হত্যা করে ৷ এসময় অা: জলিল মাষ্টারের স্ত্রী জহিরের মা ফিরোজা বেগম (৪৫) বাঁধা দিতে গেলে তাকেও কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে সে৷ এসময় প্রতিবেশী সেতারা বেগম (৪৫) ও হারুন (৫৫)কে কুপিয়ে জখম করে জহির ৷ সেতারা বেগম নাগ্রাভাংগা গ্রামের শাহ অালমের স্ত্রী ও হারুন অহেদাবাদ গ্রামের মৃত কাঞ্চল অালীর ছেলে ৷ পরে অনুতপ্ত হয়ে জহির একটি গাছের সাথে গলায় ফাঁস লাগিয়ে অাত্মহত্যা করে ৷ খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ দুটি উদ্ধার করেছে ৷ অাহতদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে ৷

প্রাথমিকভাবে এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানাগেছে, অা: জলিল মাষ্টার স্ত্রী ফিরোজা বেগমকে মারধর করলে ছেলে কলেজ থেকে ফিরে এলোপাথারি কুপিয়ে বাবাকে হত্যা করে ৷ অা: জলিল মাষ্টারের একাধিক স্ত্রী রয়েছে ৷ এদিকে ফিরোজা বেগমের অবস্থা অাশংকাজনক বলে জানাগেছে ৷

অপরাধ

আপনার মতামত লিখুন :