ফরিদপুরবাসীর কাছে নৌকায় ভোট চাইলেন প্রধানমন্ত্রী

tkeditortkeditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০১:৪০ AM, ৩০ মার্চ ২০১৭

ফরিদপুর সংবাদদাতা : আগামী ২০১৯ সালের নির্বাচনে আবারও নৌকায় ভোট দেওয়ার জন্য বৃহত্তর ফরিদপুরবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার(২৯ মার্চ) বিকেলে ফরিদপুর শহরের সরকারি রাজেন্দ্র কলেজ মাঠে এক জনসভায় এ কথা বলেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমি আপনাদের কাছে ওয়াদা চাই। আগামী নির্বাচন সামনে। ২০১৯ সালে নির্বাচন হবে, সেই নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে আমরা যাতে আমাদের উন্নয়নের কাজ অব্যাহত রাখতে পারি তার জন্য আপনাদের কাছে নৌকায় ভোট চাই। আপনারা নৌকায় কি ভোট দেবেন, বলেন- হাত তুলে বলেন।’

বিএনপি যখনই ক্ষমতায় এসেছে ফরিদপুর অবহেলিত থেকেছে বলে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আজকে ফরিদপুরের জন্য অনেক উপহার নিয়ে এসেছি। একমাত্র আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসলেই দেশে উন্নয়ন হয়। উপহার হিসেবে আপনাদের ২০টি প্রকল্প দিয়ে গেলাম।’

আওয়ামী লীগ সরকারের আমলের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজের খতিয়ান তুলে ধরে শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা ক্ষমতায় এসে টাকা পয়সা খরচ করে গাড়ি কিনি আর বিএনপি-জামায়াত সরকার আন্দোলনের নামে সেগুলো পুড়িয়ে ধ্বংস করে। তারা লঞ্চ, ট্রেন পুড়িয়ে দেশের সম্পদ নষ্ট করে। এদেশের জনগণের উন্নয়নে তারা কোনও কাজ করেনি।’

তিনি বলেন, প্রতি উপজেলায় অন্তত একটি সরকারি স্কুল ও কলেজের ব্যবস্থা করছি। বাংলাদেশে একটা মানুষও গৃহহারা থাকবে না, যার ঘর নাই বিনা পয়সায় ঘর করে দিবে। গরিবের কল্যাণ করে আওয়ামী লীগ। বয়স্কভাতা, বিধবাভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা, মুক্তিযোদ্ধা ভাতার ব্যবস্থা করে দিয়েছি।

বিভাগ হবে ফরিদপুর: অচিরেই বৃহত্তর ফরিদপুরের জেলাগুলোকে নিয়ে পৃথক বিভাগ করা হবে বলে ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, গোপালগঞ্জ, রাজবাড়ী, শরীয়তপুর, মাদারীপুর নিয়ে পৃথক বিভাগের পরিকল্পনা রয়েছে এবং তা অচিরেই বাস্তবায়ন করা হবে।

ক্ষমতার বিকেন্দ্রীকরণের মাধ্যমে জনগণ যেন আরও বেশি সেবা পায়, কাজ পায় এ লক্ষ্যে নতুন বিভাগ করা হবে বলেও জানান তিনি।

জেলার খবর

আপনার মতামত লিখুন :