রবিবার, ৩১ মে ২০২০, ০৬:৫৯ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম
এসএসসি পরীক্ষায় ফেল করায় গলায় ফাঁস দিলো শিক্ষার্থী প্রতিষ্ঠান চালালে রাখতে হবে থার্মোমিটার-জীবানুণাশক ঠাকুরগাঁওয়ে বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস উদযাপনে টাস্কফোর্স কমিটির সভা ফুলবাড়ীতে ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের খাদ্য সহায়তা দিলেন এমপি ফুলবাড়ীতে লেবু জাতীয় ফসলের সম্প্রসারণ কল্পে দিন ব্যাপী কৃষক প্রশিক্ষণ আটোয়ারীতে কৃষকের মাঝে কোম্বাইন্ড হারভেষ্টার মেশিন প্রদান গণপরিবহনের ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়িয়ে প্রজ্ঞাপন জারি স্বাস্থ্যবিধি মেনে যাত্রা শুরু করলো লালমনি এক্সপ্রেস করোনায় আক্রান্ত সন্দেহে মা’কে বাড়ীতে ঢুকতে দেয়নি ছেলে এসএসসিতে ১০৪ প্রতিষ্ঠানের কোনও শিক্ষার্থী পাস করেনি !

প্রতিনিয়ত রুপ বদলাচ্ছে করোনা!

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্কঃ
  • প্রকাশিত: বুধবার, ২৯ এপ্রিল, ২০২০
  • ৬৫ পঠিত

করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে এর জেনোম সিকোয়েন্স জানাটা অত্যন্ত জরুরি। কারণ প্রতিনিয়ত রূপ বদল করছে ভাইরাসটি। যাতে ব্যাহত হচ্ছে, দ্রুত প্রতিষেধক তৈরির কাজ। তাই বিভিন্ন দেশ জেনোম সিকোয়েন্স তৈরি করলেও উদাসীন বাংলাদেশ। এমনই অভিমত গবেষকদের। দেশ-কাল-পাত্রভেদে রূপ বদলাচ্ছে, নভেল করোনা ভাইরাস বা সার্স কভ টু। এ পর্যন্ত এর তিনশোর বেশি জেনোটাইপ মিলেছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে জার্মানির ডেটা ব্যাংকে পাঠানো সাড়ে ১২ হাজার তথ্য বিশ্লেষণ করে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

এরইমধ্যে যুক্তরাষ্ট্র, ইতালি, স্পেন, ফ্রান্স ও ব্রিটেনের মতো উন্নত দেশকে মৃত্যুপুরী বানিয়ে দিয়েছে বৈশ্বিক এই মহামারি। সুখবরের বদলে আরও ভয়াবহ বিপর্যয়ের আভাস দিচ্ছেন গবেষকরা। তারা বলছেন, টিকে থাকার জন্য রূপ বদল করছে, ভাইরাসটি। যা আরও ভয়াবহ হতে পারে। এই পরিবর্তন প্রতিষেধক তৈরিতে করছে প্রতিবন্ধকতা।

প্রতিবেশী দেশ ভারত, পাকিস্তান, নেপাল ভাইরাসটির জেনোম সিকোয়েন্সে করেছে। কিন্তু, সক্ষমতা থাকা সত্ত্বেও এখনও সেদিকে খেয়াল নেই বাংলাদেশের। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ভবিষ্যৎ পরিস্থিতি বিবেচনায় বাংলাদেশেরও উচিত ভাইরাসটির জিনোম সেকোয়েন্স তৈরিতে পদক্ষেপ নেয়া।

ঠাখ/আরএফ

সংবাদটি শেয়ার করুন

Comments are closed.

এই বিভাগের আরো খবর :

আমাদের সাথে থাকুন

Facebook Pagelike Widget

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
৪৭,১৫৩
সুস্থ
৯,৭৮১
মৃত্যু
৬৫০

বিশ্বে

আক্রান্ত
৬,১৯০,৭৮৫
সুস্থ
২,৭৫৮,৯৭৭
মৃত্যু
৩৭১,৪৬৫

Archive Calendar

© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ঠাকুরগাঁওয়ের খবর

কারিগরি সহযোগিতায়: অন্তর রায় প্রিন্স
You cannot copy content of this page