পীরগঞ্জে উপবৃত্তির টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

tkeditortkeditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০১:৩৮ PM, ২৯ জুলাই ২০১৬

জাকির হোসেন, পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাও)থেকে : ঠাকুরগাঁও জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার ভোমরাদহ -২ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: পাভেল ও ৫ নং সেনুয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো: মোজাফ্ফর আলীর বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। এ নিয়ে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এ ঘটনায় গত ২৪-৭-২০১৬ ক্ষুব্ধ অভিভাবকরা প্রধান মো: পাভেল এর বিরুদ্ধে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে, ১৯-৭-২০১৬ মো: মোজাফ্ফর আলীর বিরুদ্ধে  উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন।

অভিভাবকরা অভিযোগ করেন, গত ১৪ জুলাই  পীরগঞ্জ ভোমরাদহ-২ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সহ  কয়েকটি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির টাকা দেওয়া হয়। ওই দিন সেখানে জেলার পীরগঞ্জ উপজেলার ভোমরাদহ -২  সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির টাকাও দেওয়া হয়। ভোমরাদহ-২ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: পাভেল ও সহকারী শিক্ষকগণ কৌশলে প্রতিষ্ঠানের প্রতি শিক্ষার্থী প্রতি নির্ধারিত বৃত্তি থেকে ২০ থেকে ৪০ টাকা পর্যন্ত কম দেন। এমনকি কোনো কোনো ক্ষেত্রে শিক্ষার্থীকে না জানিয়েই তার বৃত্তির টাকা উত্তোলন করে তা আত্মসাৎ করেছেন বলেও অভিযোগ করেন অভিভাবকরা।

ঠিক একই কৌশলে কোচিং প্রাইভেটের কথা বলে ৫ নং সেনুয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো: মোজাফ্ফর আলী হাজার হাজার টাকা কমলমতি শিশুদের কাছে ভয় ভীতি দেখিয়ে আদায় করেছেন অভিযোগে উল্লেখ্য রয়েছে।

ভোমরাদহ-২ বিদ্যালয়ের ১র্ম শ্রেণীর ছাত্রী আখি বলেন, ‘ভয় ভীতি দেখিয়ে ধমক দিয়ে ৪০টাকা নেন সার । ’ শিশু শ্রেণীর ছাত্র মারুফের বাবা মো: দুলাল বলেন, ‘আমি আমার ছেলের উপবৃত্তির টাকা নিতে গেলে দেখি আমাকে ৪০ টাকা কম আমাকে দেওয়া হয়। পরে আমি অভিযোগ করি।

ভোমরাদহ -২ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: পাভেল জানান, আমার বিরুদ্ধে যে অভিযোগটি হয়েছে তা ভিত্তিহীন। এলাকার একটি মহল আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে।এ নিয়ে ৫ নং সেনুয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মো: মোজাফ্ফর আলীর সাথেও কথা বললে তিনি বিষয়টি অস্বীকার করেন।

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম জানান, উপবৃত্তির টাকা আত্মসাতের বিষয়ে ওই বিদ্যালয়ের অভিভাবকদের অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ বিষয়ে পীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবিএম ইফতেখারুল ইসলাম খন্দকার বলেন,২ টি স্কুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ আমরা পেয়েছি তদন্ত চলছে তদন্তে সত্যতা থাকলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে ।

অপরাধ

আপনার মতামত লিখুন :