পাইকারী কাঁচাবাজার থেকে ৮ বস্তা জবাই করা হাঁস উদ্ধার

tkeditortkeditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৭:৩৪ PM, ০৪ এপ্রিল ২০১৭

নওগাঁ সংবাদদাতা : নওগাঁ শহরের পাইকারী কাচাঁ বাজারে সোমবার রাতে আট বস্তা জবাই করা হাঁস কে বা কারা ফেলে রেখে গেছে। এ বস্তাগুলো কে রেখে গেছে তা এখন পর্যন্ত জানা যায়নি।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১টায় নওগাঁ সদর কালিতলা পুলিশ ফাঁড়ি হাঁসের বস্তাগুলো উদ্ধার করে।  তবে এ নিয়ে স্থানীয় জনমনে বিভিন্ন প্রশ্ন দেখা দেখা দিয়েছে।

জানা গেছে, আটটি দুই মণ ওজনের বস্তায় জবাই করা হাঁস শহরের পাইকারী কাচাঁ বাজারে ফেলে রেখে গেছে। আটটি বস্তায় আনুমানিক ২০০টি হাঁস হবে।  প্রতিটি জবাই করা হাঁসের নাড়ি-ভুড়ি নেই।  শুধু শরীর।  তবে হাঁস খামারে রোগের প্রাদুর্ভাব হওয়ায় জবাই করে হোটেলে বিক্রি করার পরিকল্পনা ছিলো কিনা-এমন ধারণাও করছে অনেকে।
আবার হোটেল মালিক না নেয়ায় সেখানে ফেলে রাখা হয়েছে কিনা।  যা বাজারে ফেলার কোন যুক্তিই আসেনা।  যেখানে জনগণকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে।

আবার কোন অসাধু চক্র হাঁসের মধ্য করে কোন কিছু পাচার করার সীদ্ধান্ত ছিলো কিনা। এটা কারা করতে পারে তা নিয়ে দেখা দিয়েছে জনমনে প্রশ্ন।  গত শনিবার রাতে সদর উপজেলার চকপ্রসাদ মৃধাপাড়া ফাঁকা মাঠে গরু ও ছাগল জবাই করে চামড়া ফেলে রেখে শুধু মাংস নিয়ে যায়।  কারা এটা করেছে তা এখনো অজানা।

নওগাঁ বাজার কাঁচামাল ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির সাধারন সম্পাদক টিপু সুলতান বলেন, বাজারের নাইটগার্ড ঠিকমতো তার দায়িত্ব পালন করেন।  কাউকে হয়রানির করার জন্য ভোররাতে কেউ এখানে রেখে যেতে পারে।

নওগাঁ সদর কালিতলা পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ মঞ্জুরুল হক ভূঁঞা বলেন, বিষটি ভিন্নখাতে ও বিভ্রান্ত করার জন্য বাজারে মধ্যে হাঁসের বস্তাগুলো রাখা হয়েছে।  তবে হাঁসের মালিককে পাওয়া গেলে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে।

অপরাধ

আপনার মতামত লিখুন :