দেবতাকে তুষ্ট করতে সন্তানদের সামনেই স্ত্রীর মাথাকেটে দেবতার চরণে অর্পণ করল স্বামী !

Bidhan DasBidhan Das
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৯:৫২ PM, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : আদৌ কি একবিংশ শতকে দাঁড়িয়ে এতটুকু এগিয়েছে ভারত ? কুসংস্কার আর অন্ধবিশ্বাসের বেড়াজাল থেকে কি মুক্ত হয়েছে সে দেশের সাধারণ মানুষ?

আজও সংবাদ মাধ্যমে এই ধরনের খবর চোখে পড়লে চমকে উঠতে হয় । তা হলে কি আমরা নিজেদের সভ্য মানুষ বলে দাবি করে ভুল করি? মধ্যপ্রদেশের বসউদা গ্রামের সাম্প্রতিক একটি ঘটনা নৃশংসতার সমস্ত সীমা ছাড়িয়ে গিয়েছে ।

সেখানে দেবতাকে খুশি করতে স্ত্রী’র মুন্ডছেদ করেছে স্বামী । তাও আবার নিজের সন্তানদের সামনেই । ব্রজেশ কেওয়াত নামে ওই ৫০ বছরের ওই ব্যক্তি তার দুই সন্তান, মনোজ ও সুরেন্দ্র । তাদের সামনেই তাদের মায়ের গলা কেটে দেবতার পায়ে অর্পণ করে বাবা ব্রজেশ । এই ঘটনার পরই পালানোর চেষ্টা করেছিল ‘গুণধর’ স্বামী । কিন্তু পুলিশ গ্রেফতার করে তাকে ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই ব্যক্তি মারাত্মকভাবে কুসংস্কার আচ্ছন্ন । এর আগেও দেবতার সামনে একই কারণে একটি ছাগল বলি দিয়েছিল সে । এরপর ব্রজেশের অন্ধ বিশ্বাসের বলি হতে হল তার নিরাপরাধ স্ত্রী’কে । মাঝ রাতে স্ত্রী’র মুন্ডু ছেদ করার সময়ই তার দুই ছেলে তা দেখতে পায়। তাদের ভয় দেখিয়ে, হুমকি দিয়ে মুখ বন্ধ রাখতে বলে ব্রজেশ । কিন্তু ছেলেরা কোনওক্রমে পালিয়ে গিয়ে প্রতিবেশীদের খবর দেয় ।

সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে যায় স্থানীয় পুলিশ । সেখানে গিয়ে রক্তাক্ত পড়ে থাকতে দেখা যায় ব্রজেশের স্ত্রী’কে । ওই মহিলার কাটা মুন্ডুটি দেবতার পায়ের কাছে পড়ে থাকতে দেখেন পুলিশ আধিকারিকরা । পুলিশ দেখেই পালানোর চেষ্টা করে ব্রজেশ । কিন্তু ব্যর্থ হয় । তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বিডি

আন্তর্জাতিক খবর

আপনার মতামত লিখুন :