ঠাকুরগাঁওয়ে চেতনানাশক খাইয়ে নগদ টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার চুরি

৩ জেলায় অভিযান চালিয়ে ৮ আসামীকে গ্রেফতার করলেন এসআই রনি

Bidhan DasBidhan Das
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৩:৩৪ PM, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০

নিজস্ব প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁওয়ে নাস্তার সাথে চেতনানাশক ঔষধ খাইয়ে নগদ প্রায় ৫ লক্ষ টাকা ও চার লক্ষ টাকা মূল্যের স্বর্ণালঙ্কার চুরির ঘটনায় দায়ের করা মামলায় জড়িত ৮ জন আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আটককৃতদের আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন ঠাকুরগাঁও সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তানভিরুল ইসলাম।

এর আগে গত ১৫ আগষ্ট ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার মৌজাবনী প্রধানপাড়া এলাকার শফিউল আলমের ছেলে মঞ্জুরুল ইসলামের বাসায় এ দূ:সাহসিক চুরির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় মঞ্জুরুল ইসলাম বাদী হয়ে সদর থানায় এম এ সালাম ও  ওসমান গনি’র নাম উল্লেখ করে ৬/৭ জনকে অজ্ঞাত দেখিয়ে একটি মামলা দায়ের করে।

পরে এ মামলার দায়িত্বভার পান সদর থানার এসআই রনি। তিনি দিনরাত পরিশ্রম করে পঞ্চগড়, রংপুর ও কুড়িগ্রাম জেলায় অভিযান চালিয়ে ৬ জন আসামীকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হন। এছাড়াও চুরির ঘটনায় জড়িত দুই আসামী পঞ্চগড় ও রংপুর জেলা কারাগারে অন্য অপরাধে সাজা খাটা অবস্থায় তাদেরও এ মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়।

গ্রেফতার হওয়া আসামীরা হলেন-ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার মৌজাবনী প্রধানপাড়া এলাকার মৃত; বছিরউদ্দিনের ছেলে এম এ সালাম (৪৫), একই এলাকার আ: রহিম এর ছেলে জাকিরুল ইসলাম ওরফে জাকির (৩৫), পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার নগরকুমারী এলাকার আ: জলিল ওরফে হিজরা জলিলের ছেলে হাসিবুল (৩০), একই উপজেলার সোনাপাড়া এলাকার মৃত; নবির হোসেন এর ছেলে ওসমান গনি (৩২), কুরুলিয়া জুজাড়িপাড়া এলাকার মৃত; খলিলুর রহমানের দুই ছেলে সোলায়মান আলী ওরফে হাবলু (৩৬) ও হুমায়ুন কবীর ওরফে আজাদ (৩০), পঞ্চগড়ের আটোয়ারী উপজেলার দক্ষিণ বলরামপুর এলাকার মৃত; আছিমউদ্দিন এর ছেলে জামিরুল ইসলাম ওরফে মেম্বার (৩৩) এবং কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার পূর্ব শিববাড়ী এলাকার ইব্রাহিম আলীর চেলে চাঁন মিয়া (৫৫)।

উল্লেখ্য, চাঁন মিয়ার বর্তমান ঠিকানা রংপুর কোতয়ালী থানার আলমনগর এলাকায় এবং তাকে ধরার সময় তার কাছ থেকে চেতনানাশক পাউডার, চুরি করার অন্যান্য সরঞ্জামাদি সহ ২৬১ পিচ ইয়াবা পাওয়া যায়। পরে এ ঘটনায় এসআই রনি বাদি হয়ে তার বিরুদ্ধে মাদক আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

এছাড়াও ধৃত আসামীদের মধ্যে জাকিরুল ইসলাম ওরফে জাকির উক্ত চুরির ঘটনার সহিত নিজে জড়িত থাকার কথা এবং জড়িত অপরাপর আসামীদের কথা উল্লেখ করে বিজ্ঞ আদালতে ফৌ:কা:বি: ১৬৪ ধারা মতে স্বেচ্ছায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেছেন।

বিডি

অপরাধ

আপনার মতামত লিখুন :