জয়পুরহাটে ৫ টাকা ভাড়া কম দেওয়ায় চলন্ত বাস থেকে যাত্রীকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিল হেলপার !

Bidhan DasBidhan Das
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৯:২৯ PM, ২৬ অগাস্ট ২০২০

আহসান হাবীব আরমান, জয়পুরহাট প্রতনিধিঃ মাত্র পাঁচ টাকা ভাড়া কম দেওয়ায় জয়পুরহাটের আক্কেলপুর পৃর্ব মাতাপুর এলাকায় এক যাত্রীকে চলন্ত বাস থেকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। এতে ওই বাসযাত্রী বাম হাতের কবজিতে গুরুতর আঘাত পেয়েছেন। এ ঘটনায় ক্ষুব্ধ লোকজন প্রায় আধা ঘণ্টা সড়ক অবরোধ করে রাখেন। পরে থানা-পুলিশ ও শ্রমিকনেতারা এসে পরিস্থিতি শান্ত করেন। বুধবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার পর সেখানে উপস্থিত লোকজন বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠলে শ্রমিকনেতা বাবু ওই যাত্রীকে চিকিৎসার জন্য জয়পুরহাট জেলা আধুনিক হাসপাতালে পাঠিয়ে দিয়েছেন। তবে কোন বাসে ঘটনাটি ঘটেছে, কেউ বলতে পারেনি।

পুলিশ ও স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, উপজেলার ইসমাইলপুর মধ্যপাড়া গ্রামের বাসিন্দা সরোয়ার হোসেন (২৩) কাজ শেষে জয়পুরহাট থেকে একটি যাত্রীবাহী বাসে বাড়ি আসছিলেন। জয়পুরহাট থেকে পূর্ব মাতাপুর মোড়ের বাসভাড়া ২৫ টাকা। সরোয়ার হোসেন বাসের সুপারভাইজারকে ২০ টাকা ভাড়া দেন। সামাজিক যোগাযোগ বজায় না রেখে এক সিটে ২ জন বসাকে কেন্দ্র করে পাঁচ টাকা ভাড়া কম দেওয়া নিয়ে তাঁর সঙ্গে বাসের সুপারভাইজারের এক পর্যায়ে কথাকাটাকাটি হয়।

বাসটি পূর্ব মাতাপুর মোড়ে আসার পর সেখানে বাস থামানো হয়নি। কিছু দূর গিয়ে চলন্ত বাস থেকে চালকের হেলপার দরজায় দাঁড়িয়ে থাকা বাসযাত্রী সরোয়ার হোসেনকে ধাক্কা দিয়ে সড়কের পাশে ফেলে দিয়ে বাসটি নিয়ে দ্রত চলে যান। বাসটি চলে যাওয়ার পর সরোয়ার হোসেনের চিৎকার শুনে স্থানীয় লোকজন সেখানে গিয়ে তাঁকে উদ্ধার করেন।

এ ঘটনার প্রতিবাদে তাৎক্ষণিকভাবে স্থানীয় লোকজন সড়কের ওপর বসে পড়েন। এতে সড়কের দুই পাশে যানবাহন আটকা পড়ে। খবর পেয়ে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাহ আলম ও জয়পুরহাট মোটর শ্রমিক ইউনিয়নের নেতা বাবু ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি শান্ত করেন। এরপর স্থানীয় ব্যক্তিরা সড়কের ওপর থেকে চলে যান।

প্রত্যক্ষদর্শী পূর্ব মাতাপুর মোড়ের বাসিন্দা আবুল কালাম আজাদ বলেন, চলন্ত বাস থেকে সরোয়ার হোসেনকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়া হয়েছে। এতে তাঁর বাম হাতের কবজিতে আঘাত লেগেছে। এ ঘটনায় তাঁরা প্রায় ২০ মিনিট সড়কের ওপর বসে থাকেন।

বিডি

অপরাধ

আপনার মতামত লিখুন :