চরম আর্থিক সংকটে সেতাবগঞ্জ চিনিকল,কর্মচারীদের বেতন-ভাতা বাকি ৪ কোটি

tkeditortkeditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:০১ PM, ০৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৬

দিনাজপুর সংবাদদাতা : দিনাজপুর জেলার সর্ববৃহৎ ভারী শিল্প প্রতিষ্ঠান সেতাবগঞ্জ সুগার মিলস্ লিঃ চলতি ২০১৫-১৬ মাড়াই মৌসুমে চরম আর্থিক সংকটে পড়েছে। শ্রমিক কর্মচারীদের বেতন ভাতা প্রায় ৪কোটি টাকা বকেয়া রয়েছে। যার কারণে প্রতিদিন শ্রমিক কর্মচারীদের তোপের মুখে পড়তে হচ্ছে মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালককে। চিনিকলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোঃ শহিদ উল্লাহ জানান, চলতি মৌসুমে ৫০হাজার মেট্রিকটন আখ মাড়াই করে ৩ হাজার ৭৫০ মেট্রিক টন চিনি উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে গত ২৫ ডিসেম্বর ২০১৫ সালে মিলটি মাড়াই মৌসুম শুরু করে। যার গড় রিকোভারী ধরা হয়েছিল ৭.৫০। মিল চলার কথাছিল ৪৩দিন। সেখানে ৪৪ হাজার ৭৬৪ মেট্রিক টন আখ মাড়াই করে গত ৭ ফের্রুয়ারী ২০১৬ পর্যন্ত ৪৫দিনে মিলটি চিনি উৎপাদন করেছে ২ হাজার, ৭শ মেট্রিক টন। যার গড় রিকোভারী রয়েছে ৬.০০। তিনি আরো বলেন, চলতি মৌসুমে মিলে কোন প্রকার যান্ত্রিকক্রুটি না দেখা দেয়ার কারণে উৎপাদিত চিনির গুনগত মান বিগত কয়েক বছরের  উৎপাদিত চিনির তুলনায় অনেক ভাল। চিনির গুনগতমান আরো ভাল করার জন্য এ মিলে একটি এসেন্টিফিকাল মেশিন বসানোর পরিকল্পনা চলছে। ইতি মধ্যেই মেশিনের টেন্ডার হয়েগেছে। আখচাষীদের আর্থিক সমস্যার সমাধান হলেও শ্রমিক কর্মচারীদের বেতন ভাতা প্রায় ৪কোটি টাকা বকেয়া রয়েছে। যার কারণে চরম আর্থিক সংকটে পড়েছে প্রতিষ্ঠানটি। মিলের আর্থিক সমস্যা সমাধানে ঢাকা সদর দপ্তরের জরুরী পদক্ষেপ কামনা করেছে মিলে কর্মরত সকল শ্রমিক কর্মচারীরা।

আপনার মতামত লিখুন :