গৃহ পরিচালিকার শিশুকন্যা আলিফা বাঁচতে চায়! পালিয়েছে জন্মদাতা

tkeditortkeditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১২:০৭ AM, ০৭ অগাস্ট ২০১৬

ঠাকুরগাঁওয়ের খবর : ঠাকুরগাঁওয়ের গৃহ পরিচালিকা হালিমা বেগমের ফুটফুটে শিশুকন্যা আলিফা বেগমের চিকিৎসায় সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিন। তার হার্ডের ভাল্বে সমস্যা ধরা পড়েছে, সে সমস্যা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

জরুরী ভিত্তিতে অপারেশন করার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা এবং এতে প্রায় ৩ লাখ টাকা ব্যয় হবে বলে জানিয়েছেন। কিন্তু রোগীর পরিবারের পক্ষে এই ব্যয়বহুল চিকিৎসা চালিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। পাঁচ সদস্যের সংসারের একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি ছিল হালিমার স্বামী ঠাকুরগাঁও শহরের আর্দশ কোলনী মহল্লার বাসিন্দা আলম হোসেন। সে ঠাকুরগাঁও শহরে রিক্সা চালিয়ে সংসার চালাতো। সম্প্রতি সে সংসার এবং সন্তানের ভরণ পোষণের খরচ চালতে না পেরে পালিয়ে গেছে।

এদিকে পেটের তাগিদে হালিমা মানুষের বাসা-বাড়িতে ঝি এর কাজ নিয়ে সংসারের হাল ধরে। কিন্তু তার চার বছরের কন্যা আলিফা বেগম যেদিন শ্বাস-প্রশ্বাসের কষ্ট ও বুকে ব্যাথায় কান্নাকাটি করে সেদিন আর কাজে যেতে পারে না। এসময় অসুস্থ্য মেয়েকে ঔষুধ কিনে খাওয়ানো তো দূরের কথা সেদিন তাদের প্রায় না খেয়েই কাটাতে হয়।

৫ মাস আগে মেয়ের হাডের্র ভাল্বে সমস্যা ধরা পড়ার পর এবং স্বামীর পালিয়ে যাওয়ার পর থেকে এভাবেই চলছে হালিমার সংসার। মেয়ের হার্ডে জরুরী অপারেশন ছাড়া নির্মূল সম্ভম নয় বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। এখন হালিমার সংসারের আর্থিক অবস্থা খুবই খারাপ পর্যায়ে পৌছেছে। বর্তমানে টাকার অভাবে মেয়ের চিকিৎসা ও ঔষুধ খাওয়ানো প্রায় বন্ধ রয়েছে। এমতাবস্থায়, অসহায় গৃহপরিচালিকা হালিমা বেগম মেয়ের চিকিৎসার জন্য সমাজের সকল হৃদয়বান ও দানশীল ব্যক্তির     আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেছেন।

চিকিৎসায় সহযোগিতা দিতে সরাসরি যোগাযোগ করুন আর সাহায্য দিন এই মোবাইল নম্বরে-০১৯৫৫৭৫২১৭২ (বিকাশ করা আছে)।

জেলার খবর

আপনার মতামত লিখুন :