1. [email protected] : admin : Antar Roy
  2. [email protected] : Bidhan Das : Bidhan Das
  3. [email protected] : tkeditor :
মঙ্গলবার, ০৭ জুলাই ২০২০, ০৬:১০ পূর্বাহ্ন

এসএসসির ব্যবহারিক পরীক্ষার নম্বর যোগ না হওয়ায় ৬৮ জন পরীক্ষার্থী ফেল

  • প্রকাশিত: মঙ্গলবার, ৭ মে, ২০১৯
  • ৮১ পঠিত

ঠাকুরগাঁওয়ের খবর ডেস্ক : এসএসসির ব্যবহারিক পরীক্ষার নম্বর যোগ না হওয়ার জেরে একই প্রতিষ্ঠানের ৬৮ জন পরীক্ষার্থী ফেল করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে নড়াইল সদর উপজেলার চালিতাতলা সম্মিলনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে।

জানা গেছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিষয়ের ব্যবহারিক পরীক্ষার নম্বর যোগ হয়নি তাদের।

চালিতাতলা সম্মিলনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা বলছেন, যথাসময়ে তারা ব্যবহারিক পরীক্ষার নম্বরপত্র তৈরি করে কেন্দ্রে পাঠিয়েছেন। তবে এ ধরনের সমস্যা ঠিক কী কারণে হলো, সেটা বলতে পারবো না। আমাদের কোনো দোষ নেই।

চালিতাতলা স্কুলের এবার এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিল ৭৭ জন। তাদের মধ্যে ৭১ জন নিয়মিত এবং অনিয়মিত ছয়জন। এসএসসি পরীক্ষার প্রকাশিত ফলে দেখা যায়, অনিয়মিত ছয়জন এবং নিয়মিত তিনজন পরীক্ষার্থী পাস করেছে। বাকিরা ফেল করেছে।

ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ধ্রুব কুমার ভদ্র বলেন, বিদ্যালয় থেকে যথাসময়ে ফলাফল তৈরি করে নড়াইল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হয়েছে। পরে কেন্দ্র ব্যবহারিক পরীক্ষার নম্বরপত্র বোর্ডে পাঠানোর কথা। কিন্তু নিয়মিত পরীক্ষার্থী যাদের সবারই আইসিটি ছিল, তাদের মধ্যে তিনজনের ব্যবহারিক নম্বর বোর্ডে পাঠানো হয়েছে এবং তারা সবাই ভালো ফলাফল করেছে।

তিনি আরো বলেন, অন্যদের নম্বরপত্র পাঠানো হয়নি। সে কারণে ফলাফলে ৬৮ জন পরীক্ষার্থীকে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ে ফেল দেখানো হয়েছে। বিষয়টি আমরা জেলা প্রশাসককে জানিয়েছি। আইসিটিতে সবাই পাস করলে মাত্র পাঁচজন ছাড়া বাকি সবাই পাস এবং ভালো ফলাফল করবে।

এ ব্যাপারে নড়াইল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এবং কেন্দ্রসচিব মহিতোষ কুমার দে বলেন, প্রত্যেক বিদ্যালয় বিভিন্ন পরীক্ষার ব্যবহারিক নম্বর তৈরি করে স্ব স্ব কেন্দ্রে পাঠায়। কেন্দ্র ওই নম্বরপত্র বোর্ডে পাঠিয়ে দেয়। আমরাও নম্বরপত্র বোর্ডে পাঠিয়েছি।

তিনি আরো বলেন, তিনজনের নম্বর আপলোড হলেও বাকিদের হয়নি। কেন হয়নি, সেটা আমাদের ভুলও হতে পারে। আবার সার্ভারের সমস্যাও হতে পারে। মঙ্গলবার আইসিটি পরীক্ষার ফলাফলের নম্বরপত্র নিয়ে বোর্ডে যাব আমরা। আশা করি কোনো সমস্যা হবে না।

জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা বলেন, বিষয়টি জানার পর ওই কেন্দ্রে গিয়েছি। যশোর বোর্ডের কর্তৃপক্ষের সঙ্গেও কথা হয়েছে। কর্তৃপক্ষ কেন্দ্রসচিব এবং চালিতাতলা সম্মিলনী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে যাবতীয় কাগজপত্র নিয়ে বোর্ডে যেতে বলেছেন।

ঠাখ/ডেস্ক/বিডি

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এই বিভাগের আরো খবর :

  © ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | ঠাকুরগাঁওয়ের খবর

Theme Customized By Arowa Software
You cannot copy content of this page