অবৈধ বাচ্চা নষ্ট করতে গিয়ে কমলা এখন মৃত্যুর মুখে

tkeditortkeditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৩:৪৪ PM, ৩০ জুন ২০১৬

আজিজ, রুহিয়া (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁওয়ের রুহিয়া থানার ২০ নং রুহিয়া পশ্চিম ইউনিয়নের কানিকশালগাঁও গ্রামের জহিরুল ইসলামের কন্যা কমলা খাতুন (১৪)’র সাথে একই গ্রামের ইসমাইল হোসেনের পুত্র ইমরান ছুটু (১৬)’র সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। ইমরানের সাথে কমলার অবৈধ মেলামেশার এক পর্যায়ে কমলা ৫মাসের অন্তঃস্বত্তা হয়ে পড়ে। ফলে কমলা বার বার ইমরানকে বাচ্চার কথা বলে বিয়ের জন্য চাপ দিলে ইমরান কমলার কথা এড়িয়ে যান। উপায়ন্তর না পেয়ে গত সোমবার কমলা গ্রামের এক মহিলার কাছে বাচ্চা নষ্ট করার জন্য ঔষধ খায়। ঔষধ খেয়ে কমলা গুরুতর অসুস্থ হলে কমলার বাবা জহিরুল ইসলাম ঐ অবস্থায় ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালে ভর্তি করার জন্য নিয়ে যায় । সদর হাসপাতালের নার্সরা জানায় এত ছোট মেয়ের পেটে বাচ্চা রয়েছে তখন তার বাবাকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন প্রেমের কারণে এইসব ঘটনা ঘটেছে। তখন নার্সরা ঠাকুরগাঁও সদর থানার এসআই রশিদকে বিষয়টি অবহিত করেন। পরে এসআই রশিদ একটি পুলিশ রিপোর্ট লিখে মেয়েটিকে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এ ব্যাপারে মঙ্গলবার গ্রামের সালীশে বসে ৩৫০০০/- টাকা জরিমানা করে মিমাংসা করা হয়। ঘটনাটি এলাকায় ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করেছে।

অপরাধ

আপনার মতামত লিখুন :