অতিরিক্ত ফি প্রত্যাহারের দাবিতে বিক্ষোভ ॥ কলেজে তালা

tkeditortkeditor
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১২:৩৪ AM, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা : ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ সরকারি কলেজের অনার্স প্রথম বর্ষের ফাইনাল পরীক্ষার্থীদের নিকট থেকে ফরম পুরণে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের প্রতিবাদে শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভ করে কলেজের ৬টি বিভাগের কক্ষে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে। মঙ্গলবার দুপুর ২টায় এ ঘটনা ঘটে।তবে কলেজ উপাধ্যক্ষ শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ করার কথা অস্বীকার করে ফরমপূরণে সামান্য সমস্যা হয়েছিল বলে জানিয়েছেন।শিক্ষার্থীরা জানায়, অনার্স ১ম বর্ষের ফাইনাল পরীক্ষার ফরম পূরণ মঙ্গলবার(১৫/১২/১৫) শুরু হওয়ার কথা। এজন্য বোর্ড নির্ধারিত ফি সর্বোচ্চ ১৬৫০ টাকা থাকলেও কলেজ কর্তৃপক্ষ দুইদিন আগে ফরমপূরণ বাবদ সর্বোচ্চ ২৮৭০টাকা নিধারণ করে দিয়ে নোটিশ জারি করে।এতে সাধারণ শিক্ষার্থীদের মাঝে ক্ষোভের সঞ্চার হয়।
মঙ্গলবার ফরম পূরণ না করে অতিরিক্ত ফি প্রত্যাহারের দাবিতে বিক্ষোভ করে কলেজের ৬টি বিভাগে তালা ঝুলিয়ে দেয় তারা।
বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থী হাসান আলী জানায়, অনার্স প্রথম বর্ষের ফাইনাল পরীক্ষায় বোর্ড নির্ধারিত ফি সর্বোচ্চ ১৬৫০ টাকা। কিন্তু আমাদের কাছ থেকে নির্ধারিত বোর্ড ফি’র দ্বিগুণ সর্বোচ্চ ২৮৭০ টাকা পর্যন্ত নেওয়া হচ্ছে।
মুক্তা আক্তার নামে আরেক শিক্ষার্থী বলেন,আমরা চরম বিপাকে পড়েছি।এত টাকা পরিবারের পক্ষে দেওয়া সম্ভব নয়।আমরা শিক্ষার্থীরা কর্তৃপক্ষের কাছে ফি কমানোর অনুরোধ করেও লাভ হয়নি।তাই ৬টি বিভাগে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছি।আমাদের দাবী একটাই নির্ধারিত বোর্ড ফি অনুযায়ী ফরম পূরণ করতে চাই।যতক্ষণ পর্যন্ত নির্ধারিত ফি অনুযায়ী ফরম পূরণের সুযোগ মিলবে না ততক্ষণ পর্যন্ত আমরা কেউ ফরম পূরণ করবো না।
এ ব্যাপারে কলেজের উপাধ্যক্ষ মো. মোসলেম এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বোর্ড ফি সঠিক ভাবে বলতে না পারলেও ১৭শ টাকা হবে বলে জানিয়েছেন। এছাড়া তিনি বিক্ষোভকারীদের বিক্ষোভ অযৌক্তিক দাবী করে জানান, বোর্ড ফি সহ বিভিন্ন কারণে ২৯০০ টাকা পর্যন্ত নেয়া হচ্ছে। বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থী সাথী আক্তার, ঝরণা, সুমী, মেহেদী হাসান মাসুম সহ অনেক শিক্ষার্থীই বলেন, ফরম পূরণের অতিরিক্ত টাকা না কমালে অনেকেই পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে না। কলেজ কর্তৃপক্ষের শক্ত ও অনড় অবস্থানের কারণে বহু শিক্ষার্থীর ফাইনাল পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করা অনিশ্চিত হয়ে পড়বে।

জেলার খবর

আপনার মতামত লিখুন :